01232022রবি
রবিবার, 21 নভেম্বর 2021 08:01

রিভিউ করবেন মেয়র জাহাঙ্গীর, ক্ষমার আর্জি

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে : গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে দলের পদ থেকে বহিষ্কার এবং দলের প্রাথমিক সদস্যপদ আজীবনের জন্য স্থগিত করার পর গাজীপুরে আনন্দ মিছিল মিষ্টি বিতরণ ও পটকা আতশবাজি ফাটিয়ে উৎসব করা হয়। অন্যদিকে জাহাঙ্গীর আলমের অনুসারীরা ও তার পক্ষে মিছিল করেছে। ভিড় জমাচ্ছে তার বাসায়। নগর জুড়ে যেন এক ধরনের থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমার আর্জি জানিয়ে রিভিউ করবেন বলে জানিয়েছেন মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। বহুল আলোচিত দেশের সবচেয়ে বড় সিটি কর্পোরেশন গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে বহিষ্কারের দাবি ছিল আওয়ামী লীগের একটি পক্ষের। বহিষ্কার করার পর আনন্দ উল্লাসে মেতে ওঠে জাহাঙ্গীর বিরোধীরা। মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সহ দলের একটি বড় অংশ কেন্দ্রের ওই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। জাহাঙ্গীর আলমের যারা কট্টর সমর্থক তারা অবশ্য এই বহিষ্কার মেনে নিতে পারছে না। রাতে তার পক্ষেও মিছিল হয়েছে। সকাল থেকে আবার তার বাসায় ভিড় জমাতে থাকে। একপর্যায়ে ট্রেনে বাসা থেকে বাইরে নেমে আসলে উপস্থিত জনতা কান্নায় ভেঙে পড়েন। আবেগে আপ্লুত হয়ে যান সবাই। শনিবার দুপুরে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন গাজীপুর সিটি মেয়র মেয়র জাহাঙ্গীর আলম। এসময় আবেগ তাড়িত কন্ঠে মেয়র জাহাঙ্গীর আলম প্রধানমন্ত্রীর কাছে ক্ষমার আর্জি জানিয়ে বহিষ্কারের বিষয়ে রিভিউ করবেন বলে জানিয়েছেন। তিনি অভিযোগ করেন ছাত্র রাজনীতি করার সময় থেকে একটি প্রতিপক্ষ তার নানাভাবে ক্ষতি করার চেষ্টা করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় তার ঘরের ভিতরে বসে তিন ঘন্টার আলাপচারিতাকে খন্ড খন্ড করে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। এ সময় তিনি আরো বলেন, আমি কোন ভুল করিনি, অন্যায় করিনি। তবুও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা মাথা পেতে নিবো। প্রধানমন্ত্রী বললে আমি ফাঁসিতে যেতেও রাজি আছি। তিনি তার আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্যপদ ফিরে পাবার আকুতি জানিয়ে বলেন, আমি কোন অন্যায় করিনি, অপরাধ করিনি। আমার অস্তিত্ব জুড়েই রয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আর আওয়ামী লীগ। বাকি জীবন আওয়ামী লীগের সাধারণ সদস্য ও সমর্থক হয়ে থাকতে চাই। এর আগে বাসা থেকে বের হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই উপস্থিত কর্মী-সমর্থকদের সামনে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়লে উপস্থিত দলীয় নেতাকর্মীরাও কান্নায় ভেঙে পড়েন। পরে এখানে একটি হৃদয়বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। তিনি আরো বলেন, ছোটবেলা থেকেই ছাত্রলীগ, আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে ছিলেন জাতির জনকের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে। তিনি মনে করছেন এখন আওয়ামী লীগে আছেন এবং আওয়ামী লীগে থেকেই কাজ করে যাবেন। জাহাঙ্গীর আলম মেয়র হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে মাত্র তিন বছরে নগরের ব্যাপক উন্নয়নসহ নানাভাবে মানুষের মন জয় করেছেন। সেসব মানুষ উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তা অব্যাহত দেখত চান। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বিতর্কিত বক্তব্য ভাইরাল হওয়ার প্রেক্ষিতে দল থেকে বহিষ্কারের পর জাহাঙ্গীর আলম মেয়র পদে থাকতে পারবেন কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে নগরের সাধারণ জনগণের কাছে। গত তিন বছরে হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন হয়েছে। নানা ও নানা কর্মকাণ্ড চলমান রয়েছে। জাতির জনক ও মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ধারণ চান সাধারণ মানুষ। একইসঙ্গে ও নয়ন এর চাকা অব্যাহত থাকুক সেটাই চান সবাই। এদিকে দলের সিদ্ধান্তকে সঠিক দাবি করেছেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লা খান।
পড়া হয়েছে 41 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: রবিবার, 21 নভেম্বর 2021 08:05

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা