01282021বৃহঃ
সোমবার, 04 জানুয়ারী 2021 16:47

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৪৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন

নিউজফ্ল্যাশ প্রতিবেদক: বিমান বাংলাদেশ এয়ার লাইন্সের ৪৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। সকাল কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উপস্থিতিতে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়। সোমবার সকাল ১০টায় বিমানের প্রধান কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা ও সংস্থার নিজস্ব পতাকা উত্তোলন এবং জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরু হয়। বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মো: মোকাব্বির হোসেন এবং বিমানের পরিচালকবৃন্দ,পদস্থ কর্মকর্তা ও সকল স্তরের কর্মকর্তাকর্মচারী দোয়া মোনাজাতে অংশ গ্রহণ করেন। প্রধান কার্যালয়ের লবিতে কেক কেটে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৪৯তম জন্ম বার্ষিকীপূর্তির উদ্বোধন শেষে ৫০তম জন্ম বার্ষিকীর শুভ সূচনা করা হয়। মোনাজাতে বিমানের সকল পর্যায়ের উত্তরোত্তর উন্নয়ন, সকলের সুস্বাস্থ্য কামনা, করোনা মহামারী থেকে বিশ্বকে রক্ষা এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুররহমানসহ স্বাধীনতা যুদ্ধের শহীদ, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণ করা হয়। এছাড়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ জাতির কল্যাণ কামনা করা হয়। বিমান ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোঃ মোকাব্বির হোসেন বিমানের ৪৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে বক্তব্যে সকলকে নিজ নিজ অবস্থানে থেকে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্বপালন এবং সেবা ধর্মী আচরণ নিয়ে জাতীয় এয়ারলাইন্সকে বিশ্বের অন্যতম এয়ারলাইন্সে উন্নীত করার জন্য আহ্বান জানান। তিনি আরও বলেন, কোভিড-১৯এর কারণে যেখানে বিশ্ব বিখ্যাত বিমান সংস্থাগুলো একে একে বন্ধ হয়েগেছে, সেখানে স্বল্প পরিসরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স চার্টার্ড, বিশেষ, কার্গো ফ্লাইট পরিচালনা করেছে। কিছুটা ব্যয় সংকোচন করে হলেও বিমান তার কর্মকর্তা কর্মচারীকে বেতন ভাতা নিয়মিত পরিশোধ করে যাচ্ছে। কোভিড এর কারণে বিমান এখন পর্যন্ত কোন কর্মকর্তাকর্মচারীকে চাকুরিচ্যূত করেনি। বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজের জন্য তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি অশেষ ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। সর্ব কালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুররহমান ১৯৭২ সালের ৪ জানুয়ারি রাষ্ট্রপতির অধ্যাদেশ জারির মাধ্যমে সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশের জাতীয় পতাকাবাহী আকাশ পরিবহন সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠা করেন। এরপর বাণিজ্যিক কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার লক্ষ্যে ২০০৭ সালের ২৩ জুলাই বিমানকে একটি পাবলিক লিমিটেড কোম্পানিতে রূপান্তর করা হয় যা সম্পূর্ণভাবে সরকারি মালিকানাধীন এবং এটি ১৩ সদস্যের একটি পরিচালনা পর্ষদ দ্বারা পরিচালিত হয়ে আসছে। বিভিন্ন দেশের ১৯টি শহরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের গন্তব্য রয়েছে। বর্তমানে বিমান বহরে মোট১৯টি উড়োজাহাজ রয়েছে। এর মধ্যে ৪টি বোয়িং৭৭৭-৩০০ইআর, ২টি বোয়িং৭৮৭-৯ড্রিমলাইনার, ৪টি বোয়িং৭৮৭-৮ড্রিমলাইনার, ৬টি বোয়িং৭৩৭-৮০০ ও ৩টি ড্যাশ৮-৪০০উড়োজাহাজ অন্তর্ভুক্ত। বর্তমানে বিমানের বহর যে কোন সময়ের তুলনায় তারুণ্যদীপ্ত। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ২০৩০ সালের মধ্যে এশিয়ার সেরা ১০টি এয়ারলাইন্সের একটি হিসেবে বিশ্বমান অর্জনের রূপকল্প সামনে রেখে কাজ করছে।
পড়া হয়েছে 47 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: সোমবার, 04 জানুয়ারী 2021 17:43