07282021বুধ
শিরোনাম:
নিউজফ্ল্যাশ ডেস্ক: এমন অনেক খাবার রয়েছে যা রোগ প্রতিরোধ করার সঙ্গে সঙ্গে শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশে অক্সিজেনের হাহাকার পড়ে গিয়েছে। চিকিৎসকরা লক্ষ্য করছেন, এই মুহূর্তে গুরুতর জটিলতা হল শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যাওয়া। ফলে, তাঁরা নিরন্তন বলছেন, স্বাস্থ্যকর এবং শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এমন খাবার ডায়েটে রাখতে হবে প্রতি দিন। জানেন কি, হাতের নাগালেই এমন অনেক খাবার রয়েছে যা রোগ প্রতিরোধ করার সঙ্গে সঙ্গে শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বজায় রাখতে সাহায্য করে। দেখে নিন ডায়াটে কোন খাবার সাহায্য করবে আপনাকে। কাঁচা রসুন: সকালে উঠে খালি পেটে এক কোয়া কাঁচা রসুন খেতে পারেন। এতে…
বুধবার, 21 এপ্রিল 2021 19:00

করোনায় আরও ৯৫ জনের মৃত্যু

নিউজফ্ল্যাশ প্রতিবেদক: গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৯৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৬৮৩ জন। আর চব্বিশ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৪ হাজার ২৮০ জন।এ নিয়ে মোট শনাক্তের সংখ্যা ৭ লাখ ৩২ হাজার ৬০ জন। বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে। গত ১৬ ও ১৭ এপ্রিল দেশে করোনায় ১০১ জন করে মারা যান। ১৮ এপ্রিল করোনায় মারা যান ১০২ জন। সোমবার করোনায় একদিনে রেকর্ড ১১২ জনের মৃত্যুর কথা জানায় স্বাস্থ্য অধিদফতর। যা একদিনে সর্বোচ্চ। তবে গতকাল মঙ্গলবার করোনায় ৯১ জনের মৃত্যু হয়। গত বছরের ৮ মার্চ দেশে…
নিউজফ্ল্যাশ প্রতিবেদক: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৫৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ৯ হাজার ২৬৬ জনে। তাছাড়া দেশের ইতিহাসে একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের ৭ হাজার ৮৭ জন। এ নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৩৭ হাজার ৩৬৪ জনে। রোববার ( ৪ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। আজ সুস্থ হয়েছেন আরও ২ হাজার ৭০৭ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৫২ হাজার ৪৮২ জন। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়, একদিনে ৩০ হাজার ৭২৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। দেশে ২৪ ঘণ্টায়…
বুধবার, 24 ফেব্রুয়ারী 2021 08:51

বিডিবিএল ব্যাংক

সোমবার, 22 ফেব্রুয়ারী 2021 18:21

দেশে ২৪ ঘন্টায় করোনায় মারা গেছে ৭ জন

নিউজফ্ল্যাশ প্রতিবেদক : দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন ৭ জন। এ সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৬৯২ জন। এদের মধ্যে ৪ জন পুরুষ ও ৩ জন নারী রয়েছেন। গতকালও ৭ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। এখন পর্যন্ত দেশে এ ভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেছেন ৮ হাজার ৩৫৬ জন। করোনা শনাক্তের বিবেচনায় আজ মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৫৪ শতাংশ। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে মৃত্যুর একই হার বিদ্যমান রয়েছে। আজ সোমবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘন্টায় ১১ হাজার ১০৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৩৬৬ জনের…
ডায়বেটিক বিশেষজ্ঞ, ডাক্তার মনির হোসেন: আমাদের দেশে বর্তমানে কিটো ডায়েট তরুনদের মধ্যে খুব জনপ্রিয়। কিন্তু এই কিটো ডায়েট হতে পারে আপনার মৃত্যূর কারন। # আমরা জানি মানুষের কোষের বেচে থাকার জন্য গ্লুকোজ একান্ত প্রয়োজনীয় উপাদান, আর গ্লুকোজ এর মূল সোর্স হলো কার্বোহাইড্রেট। # কিটো ডায়েট হলো নো কার্বোহাইড্রেট ডায়েট। # তাহলে গ্লুকোজ কি দিয়ে উতপাদিত হবে? অন্য সোর্স দিয়ে সেটি হতে পারে ফ্যাটি এসিড যা কিটো ডায়েটে প্রচুর থাকে। # এই ফ্যাটি এসিড থেকে তৈরী হয় গ্লুকোজ , এ পদ্ধতিকে বলে গ্লুকোনিওজেনেসিস। # এই গ্লুকোনিওজেনেসিস এর সময় বর্জ হিসাবে তৈরী হয় অনেক উপাদান। মিথাইল গ্লাইঅক্সাল তার মধ্যে অন্যতম। # মিথাইল…
বুধবার, 25 নভেম্বর 2020 15:43

সময় থাকতে সতর্ক থাকুন

নিউজফ্ল্যাশ ডেস্ক: তাড়াতাড়ি ধরা পড়লে ব্রেস্ট ক্যানসারের চিকিৎসায় সুফল মেলে। স্তন নিজে পরীক্ষা করার অভ্যেসও জরুরি বছর তিরিশের শ্রীদীপা এক দিন খেয়াল করলেন তাঁর বাহুসন্ধির অংশটা ফুলে উঠেছে। তখন তাঁর অফিসে খুব চাপ চলছে, তায় মেয়ের পরীক্ষা, বরের টুর। ডাক্তার দেখানোর সময় পেলেন মাস দেড়েক পর! তখনই সার্জারি করাতে হল। বায়োপসিতে ক্যানসার ধরা পড়ল। ট্রিটমেন্ট প্ল্যান ছকে দিয়ে ডাক্তারবাবু বললেন, প্রচুর নিয়মকানুন মানতে হবে। আগে এলে এত সমস্যাই হত না। স্নানের সময় পঁয়ষট্টি বছর বয়সি বীথিদেবীর মনে হল, স্তনে একটা শক্ত দলা মতো ঠেকছে। সে দিনই সন্ধেয় মেয়ের সঙ্গে ডাক্তারের কাছে গেলেন। সাত-আট মাস ধরে কেমোথেরাপি চলল। তার পর গত…
নিউজফ্ল্যাশ ডেস্ক: জন্মনিয়ন্ত্রণে পুরুষদের ওপর ব্যবহারের জন্য এক ধরনের টিকা আনছে ভারত। এরই মধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতিও সম্পন্ন হয়েছে। নয়দিল্লির একদল গবেষক দীর্ঘদিনে গবেষণার পর এই টিকা প্রস্তত করেছেন। তারা জানিয়েছেন, পুরুষদের জন্মনিয়ন্ত্রক এই টিকা একবার প্রয়োগ করলে ১৩ বছর তার প্রভাব থাকবে। আনন্দবাজার পত্রিকা বলছে, পেট ও উড়ুর মধ্যে ইঞ্জেকশন দিয়ে প্রয়োগ করা যাবে এই টিকা। এতে জন্মদানের ক্ষমতা হারানোর আশঙ্কা নেই। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে এর কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মেলেনি। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিকেল রিসার্চ বা আইসিএমআর জানিয়েছে, পুরুষদের জন্য প্রস্তুত এই টিকা আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে সুরক্ষিত, দীর্ঘ সময় পর্যন্ত এর উপযোগিতা থাকবে। ৩০০ জনের ওপর এর পরীক্ষা হয়েছে, সাফল্যের হার ৯৭.৩…
নিউজফ্ল্যাশ প্রতিবেদক: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আরও ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট ৪ হাজার ২০৬ জন কভিড রোগী মারা গেলেন। এই সময়ে ২ হাজার ১৩১ জন শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশে মোট শনাক্ত হলেন ৩ লাখ ৮ হাজার ৯২৫ জন। আজ শনিবার সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির এই সবশেষ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২ হাজার ২৭ জন এবং মোট সুস্থ ১ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬৩ জন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৮ দশমিক ২৩ শতাংশ, এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের…
নিউজফ্ল্যাশ প্রতিবেদক: দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের ১৫১তম দিনে ২৪ ঘন্টায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৩৩ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। আর সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮৯০ জন। গতকালের চেয়ে আজ ১৭ জন কম মৃত্যুবরণ করেছেন। গতকাল ৫০ জন মৃত্যুবরণ করেছিলেন। এখন পর্যন্ত দেশে এ ভাইরাসে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩ হাজার ২৬৭ জন। করোনা শনাক্তের বিবেচনায় আজ মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩২ শতাংশ। গতকাল মৃত্যুর হার ছিল ১ দশমিক ৩৩ শতাংশ। গতকালের চেয়ে আজ মৃত্যুর হার শূন্য দশমিক ০১ শতাংশ কম। আজ দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত অনলাইন হেলথ বুলেটিনে অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা এসব তথ্য জানান। অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা…
আইভিএফ নিয়ে সংশয় ও বিভ্রান্তির শেষ নেই। অথচ সন্তানলাভের পথে এই চিকিৎসা পদ্ধতি অত্যন্ত কার্যকর। রইল গাইডলাইন ধরুন, আপনাকে একটি বাড়ির পাঁচতলায় পৌঁছতে হবে। যদি নিজে সিঁড়ি দিয়ে তরতর করে পাঁচতলায় উঠে যেতে পারেন, তবে তো খুবই ভাল। কিন্তু যদি কোনও কারণে আপনি সিঁড়ি দিয়ে উঠতে না পারেন? তখন উপায় থাকলে আপনি লিফ্ট কিংবা এসক্যালেটরের সাহায্য নেবেন। পাঁচতলায় পৌঁছনোই তো আপনার লক্ষ্য। আপনি যে ভাবেই সেখানে যান— সিঁড়ি দিয়ে, লিফ্টে বা এসক্যালেটরে, তাতে কি পাঁচতলাটা বদলে যাবে? সে তো যেমন ছিল তেমনই থাকবে। তাই না? অ্যাসিস্টেড কনসেপশন বা সহায়ক গর্ভাধান পদ্ধতির ক্ষেত্রেও ঠিক এই কথাটাই খাটে। প্রাকৃতিক বা জৈবিক উপায়ে…