08142020শুক্র
শিরোনাম:
সোমবার, 20 জুলাই 2020 19:31

এ ব্যাপারে আমি বেশ খুঁতখুঁতে-ঈশিতা

বিনোদন প্রতিবেদক: পর্দায় খুব একটা নিয়মিত নন জনপ্রিয় অভিনেত্রী-সংগীতশিল্পী রুমানা রশীদ ঈশিতা। সংসারেই বেশি সময় দেন তিনি। তবে সুযোগ হলেই ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান ঈশিতা। ভক্ত দর্শকের টানে ফিরে আসেন টিভিপর্দায়। এবার ঈদে একটি টেলিফিল্মে দেখা যাবে এই জনপ্রিয় অভিনেত্রীকে। টেলিফিল্মের নাম ‘কেন’। আরটিভিতে প্রচারের লক্ষে নির্মাণ হয়েছে এটি। তবে নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে করোনার সংক্রমণের আগে। এর মাঝে গত চার মাসে কোনো কাজ করেননি ঈশিতা। তিনি জানান, নাটকটির শুটিং শেষ করেছি গত ফেব্রুয়ারি মাসে। তখন কোনো দুর্যোগ ছিল না। এটি নির্মাণ করেছেন মাহমুদুর রহমান হিমি। শুনেছি নাটকটি আগামী ঈদে আরটিভিতে প্রচার হবে। যদিও এখন মানুষের মনে আনন্দের চেয়ে জীবন শঙ্কাই বেশি। তারপরও যেহেতু ঈদে প্রচার হবে, তাই দর্শক সংখ্যাও বেশি থাকবে। ঈশিতা আরো বলেন, একজন অভিনয় শিল্পী হিসাবে অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ কখনো কমেনি। অভিনয়ের প্রতি ভেতর থেকে এক ধরনের টান অনুভব করি। তবে গল্প ও চরিত্র নিয়ে আমি সিরিয়াস। এ ব্যাপারে আমি বেশ খুঁতখুঁতে। ভালো গল্প ও চরিত্র দেখে লোভ সামলাতে পারি না। তেমনি গল্প ও চরিত্র ভালো না লাগলে কাজে আগ্রহ পাই না। ‘কেন’ একটি রোমান্টিক গল্প। হিমি অনেক যত্ন নিয়ে নিখুঁতভাবে ‘কেন’র গল্পটা তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন। আমার চরিত্রেও দর্শক ভিন্নতা খুঁজে পাবেন আশা করছি। এদিকে আসছে ঈদে আশফাক নিপুণের পরিচালনায় ‘ইতি মা’ নামের আরেকটি নাটক বাংলাভিশনে প্রচারের কথা রয়েছে। এতে ঈশিতার বিপরীতে অভিনয় করেছেন আফরান নিশো। গেল বছর ঈশিতা সচেতনতামূলক নাটক ‘আগুনের নোনাজল’-এ অভিনয় করেছিলেন। এতে তার সহশিল্পী ছিলেন চিত্রনায়ক রিয়াজ। অভিনয়ের পাশাপাশি সংগীতেও বেশ সমাদৃত ঈশিতা। তবে অভিনয়-গান কোনোটিই নিয়মিত নয়। সর্বশেষ ‘আমার অভিমান’ নামে একটি গানের কণ্ঠ দিয়েছেন তিনি। বেশ সাড়াও পেয়েছেন বলে জানান ঈশিতা। মিডিয়ায় কাজের পাশাপাশি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতাও করছেন জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী। এ জন্য নিজেকে নিয়মিত পড়াশোনার মধ্যে রাখছেন তিনি। পাশাপাশি বাসায় বসে গল্প, উপন্যাস পড়া এ ক্লাসিক্যাল সিনেমাও দেখা হচ্ছে তার। আর গানের চর্চা তো নিয়মিত করছেনই। নিজের ছেলেকেও এ চর্চা করাচ্ছেন বলে জানান ঈশিতা। তার ভাষ্যে, আমার ছেলে যাভীর দৌলার গানের প্রতি আলাদা ভালোলাগা আছে। মা আর ছেলে মিলে চলছে গানের চর্চা।
পড়া হয়েছে 39 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: সোমবার, 20 জুলাই 2020 19:42