01252021সোম
শিরোনাম:
বৃহস্পতিবার, 26 নভেম্বর 2020 18:40

বাজি রাখছেন ব্যক্তিজীবন

ফ্যাবুলাস লাইভস অব বলিউড ওয়াইভস। ফ্যাবুলাস লাইভস অব বলিউড ওয়াইভস।
নিজস্ব সংবাদদাতা সিনেমা, সিরিজ় নিয়ে রীতিমতো পরীক্ষানিরীক্ষা চলছে ওয়েবে। কখনও কমেডির পাল্লা ভারী, তো কখনও ডার্ক থ্রিলার জ়ঁরের। সম্প্রতি এক নতুন ধরনের শো তৈরি হচ্ছে ওয়েবের জন্য, যাকে রিয়্যালিটি শো-ও বলা যায় না, আবার পুরোপুরি স্ক্রিপ্টেডও নয়। বাস্তব জীবনেরই কাল্পনিক রূপ বলা যায়। তারকাদের জীবন তুলে ধরা হচ্ছে আমজনতার সামনে। বাস্তব কিন্তু স্ক্রিপ্টেড সম্প্রতি নেটফ্লিক্সের ‘ফ্যাবুলাস লাইভস অব বলিউড ওয়াইভস’-এর ট্রেলার জোর চর্চায়। সেখানে বলিউডের তারকাপত্নীদের দেখা যাবে তাঁদের নিজেদের অবতারেই। শোয়ে সঞ্জয় কপূরের স্ত্রী মাহীপ কপূর, চাঙ্কি পাণ্ডের স্ত্রী ভাবনা পাণ্ডে, সোহেল খান পত্নী সীমা খান এবং নীলম কোঠারির সঙ্গে ঝলক দেখা গিয়েছে শাহরুখ খান ও শাহরুখ-পত্নী গৌরী খানেরও। তারকাদের হাঁড়ির খবর বার করে আনা হচ্ছে দর্শকের জন্য। এখানেই তৈরি হচ্ছে এক নতুন ধরনের ওটিটি কনটেন্ট। মাসকয়েক আগেই মুক্তি পেয়েছিল ‘মাসাবা মাসাবা’। মা নীনা গুপ্তর সঙ্গে মাসাবার সম্পর্ক, বাবা ভিভ রিচার্ডসকে নিয়ে কন্ট্রোভার্সি থেকে শুরু করে তাঁর বিবাহিত জীবন, ডিভোর্স... গ্ল্যামারের মোড়কে পরিবেশিত হয়েছিল মাসাবারল রিয়্যাল লাইফ। মাসাবা এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘‘যখন এই কনটেন্ট আমার কাছে আসে, বুঝতেই পারছিলাম না এটা রিয়্যালিটি শো, বায়োপিক না অন্য কিছু। পরে বুঝি এটা স্ক্রিপ্টেড কিন্তু বাস্তব। নতুন কনটেন্ট ওয়েবের জগতে।’’ এই কনটেন্টের উপরেই এখন বাজি রাখছে বড়-বড় প্রযোজনা সংস্থাগুলি। সন অব দ্য সয়েল ও মাসাবা মাসাবার দৃশ্য়। বাণিজ্যিক স্বার্থে? অ্যামাজ়ন প্রাইমের ‘সন অব দ্য সয়েল’-এর টিজ়ারেই স্পষ্ট, অভিষেক বচ্চনের টিম জয়পুর পিঙ্ক প্যান্থার্সের তৈরি হয়ে ওঠা ও কবাডি ম্যাচে তাদের পারফরম্যান্সই সিরিজ়ের মূলধন। সিরিজ়ে উপস্থিত অমিতাভ বচ্চনও। প্রো-কবাডি লিগে অন্যান্য টিমের সঙ্গেই প্রত্যেক বছর অংশ নেয় এই টিম। সেখানে আলাদা করে এই টিম নিয়ে সিরিজ় তৈরি বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয় তো? ক’দিন আগে ঠিক একই কায়দায় মুক্তি পেয়েছিল ‘ইন্ডিয়ান ম্যাচমেকিং’। ম্যাচমেকার সীমা তপাড়িয়া তাঁর নিজের ক্লায়েন্টদের বিয়ের ঘটকালি করার পুরো পদ্ধতি নিয়ে উপস্থিত ছিলেন গোটা সিরিজ়ে। সিরিজ়টির পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সীমার ফলোয়ার্স বেড়ে গিয়েছিল কয়েক গুণ। মাসাবার ডিজ়াইনও যথেষ্ট প্রচার পেয়েছিল ‘মাসাবা মাসাবা’য়। তারকাদের উচ্চবিত্ত জীবন দেখার আকাঙ্ক্ষা থাকে দর্শকের, যার উপরে বাজি রাখছেন নির্মাতারা। এতে প্রযোজকের পাশাপাশি সেলেবরাও বাড়তি প্রচার পাচ্ছেন।
পড়া হয়েছে 48 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: বৃহস্পতিবার, 26 নভেম্বর 2020 18:46