07132020সোম
শুক্রবার, 26 জুন 2020 21:21

তিন মাস পর

বিনোদন প্রতিবেদক: তিন মাস পর কাজ শুরু করেছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী তারিন। কলকাতায় ‘এটা আমাদের গল্প’ ছবিতে কাজ শেষ করে মার্চে দেশে ফেরেন তিনি। তারপর থেকেই করোনা পরিস্থিতির কারণে ঘরবন্দি হন তারিন। এই সময়ে তেমন একটা বের হননি তিনি। তবে এবার তিন মাস পর ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেন তিনি। ‘বনে ভোজন’ শিরোনামের একটি ঈদ ধারাবাহিক নাটকের কাজ করলেন তিনি। ২২শে জুন থেকে এর শুটিংয়ে অংশ নেন তিনি। নাটকের মূল গল্প লিখেছেন সাজু খাদেম। আর পরিচালনায় রয়েছেন গোলাম সোহরাব দোদুল। এ নাটকে ষাটের দশকের মেয়ের ভূমিকায় অভিনয় করছেন তারিন। সহশিল্পী হিসেবে রয়েছেন জাহিদ হাসান। তিন মাস পর শুটিংয়ে ফেরা হলো। কেমন লাগছে? তারিন উত্তরে বলেন, গত প্রায় এক যুগের মধ্যে কাজ থেকে এতটা সময় কখনো দূরে থাকিনি। এবারই প্রথম। তিন মাস পর কাজে ফিরে স্বাভাবিকভাবেই ভালো লাগছে। সেই পুরনো ইউনিট, সহকর্মী। সব মিলিয়ে কাজ করতে ভালোই লাগছে। তারিন যোগ করে আরো বলেন, মহাপ্রস্তুতি নিয়ে শুটিংয়ে যেতে হচ্ছে। মাস্ক, গ্লাভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, স্প্রে সব নিয়ে যেতে হচ্ছে। আগে মেকআপ রুমে সবাই থাকতাম। এবার একা একটি রুমে আছি। মেকআপও নিজে করছি। শুটিংয়ের সেটেও মানুষ কম। আর সবাই যতটুকু সম্ভব দূরত্ব বজায় রেখেই কাজ করছে। স্বাস্থ্যবিধির বিষয়টি মাথায় রাখা হচ্ছে। তারপরও কতটুকু নিরাপদ মনে হচ্ছে এখন কাজ করাটা? তারিন বলেন, আমি বুঝেশুনেই কাজ করতে চেয়েছি। করোনা আসলে দ্রুতই বিদায় হচ্ছে না। দিন দিন সংক্রমণ বাড়ছে। অনেকেই ঘরে বসে এফেক্টেড হচ্ছেন। নিজেদের শতভাগ সচেতন থাকতে হবে। সচেতন থাকার পর ভাগ্যে যেটা লিখা আছে সেটা তো হবেই। কলকাতার ‘এটা আমাদের গল্প’ ছবির ডাবিংয়ে যাওয়ার কথা ছিল আপনার? তার খবর কী? উত্তরে তারিন বলেন, ছবিটির আমার অংশের কাজ শেষ করেছি আগেই। অন্যদের কিছু শুটিং বাকি রয়েছে। জেনেছি, বাকি অংশের শুটিং আগস্টে শুরু হবে। তারপরই ডাবিং শুরু হবে। পরিস্থিতি ভালো হলে ডাবিং করে আসবো। তাহলে কি এই সময়ে এখন থেকে নিয়মিত কাজ করবেন? তারিন বলেন, গল্প ও চরিত্র পছন্দ হলে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে সচেতন হয়ে শুটিং করলে অবশ্যই করবো।
পড়া হয়েছে 17 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 26 জুন 2020 21:30