10252020রবি
শিরোনাম:
সোমবার, 12 অক্টোবার 2020 19:05

মানসিক অবসাদের শিকার আমির কন্যা

বিনোদন ডেস্ক: প্রায় চার বছর ধরে তিনি ডিপ্রেশন অর্থাৎ মানসিক অবসাদের শিকার, সম্প্রতি এমনই স্বীকারোক্তি দিয়েছেন আমির খানের মেয়ে ইরার। ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিও শেয়ার করে নিজের পরিস্থিতির কথা জানিয়েছেন ইরা খান। মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতিকে কী ভাবে তিনি সামলেছেন সে কথাও শেয়ার করেছেন তিনি। ইরা বলেছেন, আমি অবসাদগ্রস্ত। চার বছরেরও বেশি সময় ধরে আমি মানসিক অবসাদে ভুগছি। এখন একটু ভালো আছি। এক বছরেরও বেশি সময় ধরে আমি মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য কিছু একটা করতে চাই। কিন্তু কী করব ভেবে পাচ্ছিলাম না। তারপর মনে হল আপনাদের একটা যাত্রাপথের গল্প শোনাই। আমার যাত্রাপথের কাহিনি। দেখি কী হয়। আশা করি আমরা নিজেদের আরও ভালো করে বুঝতে পারব। মানসিক অবসাদকে ভালোভাবে বুঝতে সক্ষম হব। এর পরে ইরা লেখেন, কেন আমি হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়ব? কী কারণে এই অবসাদ? আমার তো সবই আছে, তাই না! আরও অনেকের মতো ইরাও মনে করেন, শরীরকে ভালো রাখতে আমরা যতটা গুরুত্ব দিই, মনের স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে ততটা গুরুত্ব দিই না। মানসিকভাবে অবসাদগ্রস্ত হয়ে পড়লে ঘরে বসে না থেকে খোলাখুলিভাবে যে তা নিয়ে আলোচনা করা যেতে পারে বা প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত সেটাও অনেকে মনে করেন না। সেই ধ্যানধারণা বদলাতেই ইনস্টাগ্রামে ইরার এই ভিডিও। কয়েকদিন আগেই ট্যাটু করার জন্য ধর্মীয় নীতিপুলিশির শিকার হন আমির খানের মেয়ে ইরা খান। ইরা নতুন নতুন কাজে নিজেকে ব্যস্ত রাখতে পছন্দ করেন। সম্প্রতি তিনি ট্যাটু করতে শিখেছেন। ইনস্টাগ্রামে সেই ট্যাটুর ছবিও শেয়ার করেছেন ইরা।
পড়া হয়েছে 11 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: সোমবার, 12 অক্টোবার 2020 19:11