07132020সোম
সোমবার, 29 জুন 2020 19:22

করোনায় মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রীর স্ত্রীর মৃত্য, গাজীপুরে দাফন

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী, গাজীপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আ ক ম মোজাম্মেল হক এর স্ত্রী লায়লা আরজুমান্দ বানু লিলি করোনা সংক্রমিত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। জোহরের নামাজের পর গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন গোরস্তানে তাঁকে দাফন করা হয়। এর আগে গোরস্তান সংলগ্ন বায়তুল মোয়াজ্জাম জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে মরহুমের নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। তাঁর নামাযে জানাযায় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এমপি, যুব ও ক্রিড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, ইকবাল হোসেন সবুজ এমপি, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, জিএমপি কমিশনার আনোয়ার হোসেন, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আজমত উল্লা খাঁনসহ আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহন করেন। নামাজে জানাজায় মরহুমের একমাত্র ছেলে এটিএম মাজহারুল হক তুষার ইমামতি করেন। করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯ ) আক্রান্ত হয়ে ১৩ জুন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোহাম্মেল হক এমপি এবং মন্ত্রীর স্ত্রী লায়লা আরজুমান্দ বানু লিলি রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সি এমএইচ) ভর্তি হন। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরে আসলেও লায়লা আরজুমান্দ বানুর অবস্থা গুরুতর হওয়ায় সিএমএইচে চিকিৎসাধীন ছিলেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকাল ৭.৪৫ টায় তিনি মৃত্যুবরণ করেন। ১৯৪৯ সালের ৬ জানুয়ারি লায়লা আরজুমান্দ বানু গাজীপুরে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম শেখ মোবারক জান এবং মাতার নাম লাল বানু। ব্যক্তি জীবনে অত্যন্ত ধর্মপ্রাণ লায়লা আরজুমান্দ বানু। তিনি দীর্ঘদিন সুনামের সঙ্গে জেলা শহরের জয়দেবপুর সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। তিনি ১৯৭৩ সালে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। লায়লা আরজুমান বানু ২ কন্যা, এক পুত্র এবং ৬ জন নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।
পড়া হয়েছে 15 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: সোমবার, 29 জুন 2020 19:27