12072021মঙ্গল
সোমবার, 09 আগস্ট 2021 09:07

কলেজ শিক্ষার্থী মুনিয়ার মৃত্যু: তদন্ত প্রতিবেদনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত ১৭ আগস্ট

সায়েম সোবহান আনভীর। সায়েম সোবহান আনভীর। ছবি: সংগৃহীত
নিউজফ্ল্যাশ প্রতিবেদক: কলেজছাত্রী মুনিয়াকে 'আত্মহত্যায় প্ররোচনার' মামলায় পুলিশ যে প্রতিবেদন দাখিল করেছে, তা গ্রহণের বিষয়ে আগামী ১৭ আগস্ট সিদ্ধান্ত নেবেন ভার্চুয়াল আদালত। কলেজ শিক্ষার্থী মুনিয়ার আত্মহত্যার প্ররোচনা মামলার তদন্ত শেষে গত ১৯ জুলাই চূড়ান্ত প্রতিবেদন জমা দেন গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আবুল হাসান। মামলার একমাত্র আসামি বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরের নাম বাদ দেওয়া হয় ওই প্রতিবেদনে। মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. সরওয়ার হোসেন সেদিনই ওই চূড়ান্ত প্রতিবেদনের ওপর পরবর্তী ধার্য্য তারিখে তার না-রাজি (অনাস্থা) আবেদন দাখিল করবেন বলে আদালতকে জানান। সরোয়ার হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, 'বাদীকে সকাল ১০টায় জানানো হয়েছিল, আজ চূড়ান্ত প্রতিবেদনের শুনানি অনুষ্ঠিত হবে। যদিও এটি নির্ধারিত তারিখ ছিল না। আমি আদালতে হাজির হয়ে চূড়ান্ত প্রতিবেদনের শুনানি স্থগিত চেয়ে একটি আবেদন জমা দেই এর পরই আদালত এ তারিখ নির্ধারণ করেন।' মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গুলশান থানার ওসি তার প্রতিবেদনে, আত্মহত্যার প্ররোচনার মামলা থেকে একমাত্র আসামিকে বাদ দেওয়ার জন্য আদালতকে অনুরোধ করেন। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, তদন্তে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি আনভীরের বিরুদ্ধে কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। গত ২৬ এপ্রিল রাতে রাজধানীর গুলশানের একটি ফ্ল্যাট থেকে গলায় ওড়না প্যাঁচানো অবস্থায় ২১ বছর বয়সী কলেজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এই ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীর বড় বোন বাদী হয়ে 'আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া'র অভিযোগ এনে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডির বিরুদ্ধে মামলা করেন। ২৭ এপ্রিল বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সায়েম সোবহান আনভীরের দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা দেন আদালত।
পড়া হয়েছে 56 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: সোমবার, 09 আগস্ট 2021 09:18