বৃহস্পতিবার, ১লা জুন, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

সিলেটে লিভার রোগ বিষয়ক সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান

জালালাবাদ লিভার ট্রাস্টের উদ্যোগে সিলেট মহানগরের কমিউনিটি পুলিশের কার্যনির্বাহী পরিষদের বৈঠকে কর্মকর্তাদের জন্য লিভার রোগ বিষয়ক সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার (১৩ জানুয়ারী) শহরের অভিজাত হোটেল নুরজাহান গ্রান্ডে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে সিলেট মহানগর কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি ডা. নাসিম আহমেদের সভাপতিত্বে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন জালালাবাদ লিভার ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারভেনশনাল হেপাটোলজি ডিভিশনের ডিভিশন প্রধান অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব স্বপ্নীল।

এ অনুষ্ঠানে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মাসুদ রানা, সিলেট জেলা প্রেস ক্লাবের সদ্য সাবেক সভাপতি আল আজাদ ও নবনির্বাচিত সাধারন সম্পাদক শাহ দিদারুল আলম নোবেল, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক ড. হিমাদ্রী শেখর রায় প্রমুখ।

অধ্যাপক স্বপ্নীল তার বক্তব্যে ফ্যাটি লিভারের কারন, প্রতিকার, চিকিৎসাসহ নানাদিক তুলে ধরেন। তিনি জানান যে ফ্যাটি লিভার হলে আতংকিত না হয়ে বরং সচেতন হতে হবে। কারন ফ্যাটি লিভারের কোন কোন রোগীর লিভারে দীর্ঘ মেয়াদী প্রদাহ বা ক্রনিক হেপাটাইটিস থাকে যাকে ন্যাশ বলা হয়। ন্যাশ থাকলে শুধু যে লিভার সিরোসিস আর লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হবার ঝুকি থাকে তাই নয়, বরং পাশাপাশি এসব রোগীদের হার্ট, ব্রেন, কিডনী ও ক্যান্সারসহ নানা ধরনের জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুকিও অনেক বেশি থাকে। অন্যদিকে ফ্যাটি লিভারের যেসব রোগীরা সচেতন হন তারা অন্য রোগীদের চেয়ে অনেক বেশি ভালো থাকেন। তিনি তার বক্তব্যে ফ্যাটি লিভার নতুন নতুন ওষুধগুলোর বিষয়ে ধারনা প্রদান করেন এবং জানান যে খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন আর নিয়মিত হাটার মাধ্যমে ফ্যাটি লিভার নিরাময় করা সম্ভব।

অধ্যাপক স্বপ্নীল আরো জানান যে ফ্যাটি লিভার, হেপাটাইটিস বি ও সিসহ নানাবিধ রোগের কারনে যে সমস্ত রোগী লিভার সিরোসিস ও লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছেন তাদের জন্য এখন বাংলাদেশেই স্টেমসেল থেরাপী, প্লাজমা এক্সচেঞ্জ, লিভার ডায়ালাইসিস, রেডিও ফ্রিকুয়েন্সি এবেøশন, ট্রানআর্টারিয়াল কেমোএম্বোলাইজেশনসহ অত্যাধুনিক সব চিকিৎসা দেশে বসেই গ্রহন করার সুযোগ রয়েছে।

তিনি আরো জানান যে এরই মধ্যে জালালাবাদ লিভার ট্রাস্টের উদ্যোগে সিলেটে স্টেমসেল থেরাপী এবং ট্রান্সআর্টারিয়াল কেমোএম্বোলাইজেশন শুরু হয়েছে।

উল্লেখ্য প্রতিষ্ঠার পর থেকেই জালালাবাদ লিভার ট্রাস্ট সিলেট অঞ্চলে লিভার রোগ বিষয়ক নানা ধরনের সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি নানা ধরনের কল্যাণমূখী কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসছে। সাম্প্রতিক বন্যার সময় সিলেট সদর, ফেঞ্চুগঞ্জ, দক্ষিন সুরমা এবং সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের ট্রাস্টের উদ্যোগে ও সহযোগীতায় একাধিক হেলথ ক্যাম্প আয়োজন ও বিনামূল্যে ওষুধ বিতরন করা হয়।

এছাড়াও সে সময় সিলেট সদরের বিভিন্ন জায়গায় বন্যাপিড়ীত মানুষের মধ্যে উপহার হিসেবে অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রীও বিতরন করা হয়েছিল। পাশাপাশি ট্রাস্টের উদ্যোগে জাতীয় ইমাম সমিতির সিলেট মহানগর শাখা, সিলেট স্টেশন ক্লাব, সিলেট চেম্বার অব কমার্স ইন্ড্রাট্রিজ, সিলেট জেলা প্রেস ক্লাব, সিলেট প্রেস ক্লাবসহ বিভিন্ন সংগঠনের সাথে যৌথভাবে নিয়মিতভাবে লিভার রোগ বিষয়ক সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান আয়োজন

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ