মঙ্গলবার, ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

রাণী মুখার্জীর সঙ্গে পাকা কথা হয়েও বিয়ে ভেঙেছিল প্রসেনজিতের

জন্মসূত্রে বাঙালি হলেও রানী মুখার্জীর বেড়ে ওঠা এবং কেরিয়ার সবটাই হয়েছে মুম্বাইতেই। আজ তিনি বলিউডের একজন বিখ্যাত নায়িকা। বাংলার মেয়ে রানী একটিই মাত্র বাংলা ছবিতে অভিনয় করেন। সেখানে তার নায়ক ছিলেন প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী। তবে রানীর সঙ্গে প্রসেনজিতের একটা পারিবারিক সম্পর্ক রয়েছে। বহু আগে থেকেই নাকি তারা একে অপরকে চিনতেন।

টলিউডে ‘বিয়ের ফুল’ ছবিতে একসঙ্গে কাজ করার পর বিনোদনের জগতে আবারও মুখোমুখি প্রসেনজিৎ এবং রানী। কলকাতায় আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দুজনকে আবারও একসাথে দেখা গেল। সেখানে মুম্বাই থেকে আমন্ত্রিত ছিলেন শাহরুখ খান, অমিতাভ বচ্চন, জয়া ভাদুড়িও।

এই মঞ্চেই এতদিন পরে রানী মুখার্জীর সম্পর্কে একটি গোপন তথ্য ফাঁস করলেন “বুম্বা দা”। শোনালেন তার এক আক্ষেপের কথা। এক সময় নাকি প্রসেনজিতের সঙ্গে রানীর বিয়ের কথা হয়েছিল। তখন অবশ্য তাদের দুজনেরই বয়স ছিল খুবই অল্প। রানী তখন নেহাতই শিশু, আর প্রসেনজিত তার থেকে একটু বড় ছিলেন। এই কথা শুনে বেশ অবাক হয়েছেন প্রসেনজিৎ এবং রানীর ভক্তরা।

সেদিন প্রসেনজিৎ পুরনো দিনের কথা শেয়ার করে বলেন, “রানীই আমাকে বলল, বল, বল প্লিজ ওই গল্পটা তুমি বল। রানীকে ছোট্ট বয়স থেকে দেখছি। আর তখনই আমার মাকে রানী বলত, যে আমাকে নাকি ও বিয়ে করবে! মা তখন বাবার সঙ্গে বিয়ের ছবি দেখাতেন রানীকে। আর বলতেন তুই যখন বড় হবি, তখন তো এই লোকটা বুড়ো হয়ে যাবে। তা শুনে রানি উত্তর দিতেন, গডরেজ লাগা লেগা।”

এ বিষয়ে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় বলেন, “বুঝতে হবে, অত ছোট বয়স থেকে আমি ওকে দেখেছি। তার পর রানী আমার নায়িকা হয়েছে, সেটা আলাদা কথা। সম্পর্ক এক দিনে তৈরি হয় না।”

এদিনের অনুষ্ঠানে রানী ও প্রসেনজিৎ বেশ খোশ মেজাজেই ধরা দিয়েছিলেন। তবে কেবল অতীতেই নয়, এখনও তাদের দুজনের সম্পর্ক যে মজবুত রয়েছে তা বলাই বাহুল্য।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ