সোমবার, ৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

মেঘনায় তেলবাহী জাহাজ ডুবি

ভোলায় দুটি যানবাহনের মুখোমুখি সংঘর্ষের পর একটি তেলবাহী জাহাজ ডুবে গেছে। তবে জাহাজের স্টাফদের নিরাপদে উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার দিনগত রাত পৌনে ৩টার দিকে সদর উপজেলার কাচিয়া বৈরাগিয়া চরের মেঘনা নদীতে ‘সাগর নন্দিনী-২’ নামে তেলবাহী জাহাজটি ডুবে যায়।

ভোলার এসপি মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ডুবে যাওয়া জাহাজটিতে ১১ লাখ লিটার জ্বালানি তেল ছিল বলে জাহাজের স্টাফরা দাবি করেছেন।

জাহাজের স্টাফরা জানান, চট্টগ্রাম বন্দর থেকে ১১ লাখ লিটারের বেশি পেট্রোল ও ডিজেল লোড করে জাহাজটি ঢাকার উদ্দেশে রওনা হয়। কাচিয়া বৈরাগিয়া চরের মেঘনা নদীতে অপর একটি জাহাজের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষের পর তেলবাহী জাহাজটির তলা ফেটে যায়। এতে জাহাজটি ডুবে যায়।

এ সময় জাহাজের স্টাফরা চিৎকার করলে অপর একটি বালুবাহী বলগেট এসে তাদের ১৩ জনকে উদ্ধার করে।

কোস্ট গার্ড দক্ষিণ জোনের মিডিয়া কর্মকর্তা কে এম শাফিউল কিঞ্জল জানান, খবর পেয়ে তারা সকালের দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছান। জাহাজের স্টাফদের তীরে নিয়ে আসা হয়েছে। স্থানীয়রা তেল নেওয়ার চেষ্টা করলে কোস্ট গার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে সবাই সরে যায়। জাহাজটিকে উদ্ধারে চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, জাহাজটিতে আট লাখ ৯৮ হাজার ৪৯৬ লিটার পেট্রোল এবং দুই লাখ ৩৪ হাজার ৪৫২ লিটার অকটেন ছিল।

ভোলার ইলিশা নৌ-পুলিশ থানার পরিদর্শক মো. আকতার হোসেন জানান, নৌ-পুলিশ ও কোস্ট গার্ড মেঘনা নদী থেকে ডিজেল অপসারণের চেষ্টা করছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ