সোমবার, ৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

বাকিংহাম প্যালেসের বাইরে শোকার্তদের উপচেপড়া ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে বাকিংহাম প্যালেসের পতাকা অর্ধনমিত করা হয়। এরপর প্যালেসের বাইরে থাকা সবাই শোকে স্তব্ধ হয়ে পড়েন। ক্রমেই বাড়তে থাকে ভিড়। কারণ মৃত্যুর খবরটি বিভিন্ন মাধ্যমে মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়ে। মূলত রানির গুরুতর অসুস্থতার খবর পাওয়ার পরই সেখানে সব শ্রেণি-পেশার নাগরিকদের ভিড় বাড়তে থাকে।৭৭ বছর বয়সী শিলা ডি বেলাইগে কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, পতাকা অর্ধনমিত করার আগপর্যন্ত আমি বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। আমার মতো এখানের সবাই শোকার্ত।

প্যালেসের পতাকা অর্ধনমিত করতে দেখেছেন সাউদাম্পটনের ২৩ বছর বয়সী মাইকেল হ্যামন্ড। তিনি বলেন, রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ ব্রিটিশ চেতনার প্রতিরূপ ছিলেন। তিনি তার জীবনের অধিকাংশ সময় ব্রিটিশদের জন্য উৎসর্গ করার পাশাপাশি সবাইকে ঐক্যবদ্ধ রাখতে সক্ষম হন।ওলভারহ্যাম্পটনের হেইলি জার্ভিস ইউস্টন স্টেশনে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন। সবার সঙ্গে শোক জানাতে তিনি সরাসরি প্যালেসের সামনে চলে আসেন।

হেইলি জার্ভিস বলেন, রানিকে শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা জানাতেই এখানে আসতে চেয়েছি। সম্প্রতি আমি আমার বাবাকে হারিয়েছি। তাই আমি পরিবারের মানুষ হারানোর বেদনা বুঝতে পারছি।প্যালেসের দরজার বাইরে ফুটপাথ যুবক-বৃদ্ধে ভরে গেছে। এর মধ্যে যেমন ব্রিটিশরা রয়েছে তেমনি আছে অনেক দেশের পর্যটক। বৃষ্টির মধ্যেও অনেককে নীরবে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। আবার অনেককে বন্ধুদের সঙ্গে ছাতার মধ্যে কথা বলে দেখা গেছে।

যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে দীর্ঘমেয়াদি রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ ৯৬ বছর বয়সে মারা গেলেন। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) রানির মৃত্যুর ঘোষণা দেয় বাকিংহাম প্যালেস।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ