সোমবার, ৩০শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

বাংলাদেশকে প্রতিশ্রুতির কথা স্মরণ করিয়ে বার্তা দিল জাতিসংঘ

মুক্তভাবে মতপ্রকাশ, সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং শান্তিপূর্ণ সমাবেশ আয়োজন করতে দেওয়ার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আগামী বছর জাতীয় নির্বাচন হবে উল্লেখ করে জাতিসংঘের সদস্য হিসেবে বাংলাদেশকে সেই প্রতিশ্রুতির কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন ঢাকায় ১৯৩ সদস্য রাষ্ট্রের জোটের আবাসিক সমন্বয়ক গোয়েন লুইস।

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) এক বিবৃতিতে বাংলাদেশকে সংস্থাটির ঘোষণাপত্রের প্রতিশ্রুতির কথা স্মরণ করিয়ে দেন গোয়েন লুইস।

বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশ যেহেতু আগামী বছর তার জাতীয় নির্বাচনের কাছাকাছি আসছে, আমরা বাংলাদেশকে জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণাপত্রে লেখা অন্যান্যদের মধ্যে মত প্রকাশের স্বাধীনতা, গণমাধ্যমের স্বাধীনতা এবং শান্তিপূর্ণ সমাবেশের প্রতিশ্রুতি স্মরণ করিয়ে দিচ্ছি। আমরা জাতিসংঘের প্রতিশ্রুতি রক্ষায় বাংলাদেশের প্রতি পূর্ণ সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করছি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ১০ ডিসেম্বর জাতিসংঘ আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস পালন করে। ওইদিন জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ মানবাধিকারের সার্বজনীন ঘোষণাপত্র গৃহীত হয়েছিল। যাতে বলা হয়েছে, জাতি, বর্ণ, লিঙ্গ, ধর্ম, রাজনৈতিক বা অন্য সবাইকে মতামতের অধিকার রয়েছে। এ বছর কোভিড মহামারি, ইউক্রেন যুদ্ধ এবং জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সারা বিশ্বে অসহায় মানুষ বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

“সকল মানুষ স্বাধীনভাবে জন্মগ্রহণ করে এবং মর্যাদা ও অধিকারে সমান” এই ঘোষণার কথা স্মরণ করে জাতিসংঘ সকল বাংলাদেশীর সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে, চিন্তা ও বিবেক সহ মর্যাদা, সাম্য ও স্বাধীনতার মূল মূল্যবোধকে সমুন্নত রাখতে প্রতিশ্রুতি দেয়। আমাদের সার্বজনীন মূল্যবোধের মধ্যে নিহিত একটি মানবতা। একজন ব্যক্তির অধিকারের জন্য হুমকি সমগ্র সমাজের জন্য হুমকি। মানবাধিকার দিবস উদযাপন আমাদের একে অপরের সাথে কী মিল রয়েছে এবং যা আমাদেরকে একত্রিত করে তা প্রতিফলিত করার একটি সুযোগ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ