সোমবার, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দলের ব্যর্থতা নিয়ে বিসিবির সভায় আজ আলোচনা

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ‘পরিচালক বোর্ড’ সভায় সদ্য শেষ হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে জাতীয় দলের পারফরমেন্স নিয়ে বিশদ আলোচনা করা হবে। আজ মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এ সভা অনুষ্ঠতি হবে।

এছাড়াও পূর্বাচলে শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম নির্মানের অগ্রগতি এবং অক্টোবরে বাংলাদেশের মাটিতে অনুষ্ঠেয় আসন্ন নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়েও আলোচনা হবে।

সোমবার বিসিবির প্রধান নির্বাহি নিজাম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘আগামীকাল বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে। শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের অগ্রগতি আলোচ্য সূচিতে আছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সাধারণত আমাদের দল যখন আইসিসি বা এসিসির কোন টুর্নামেন্টে অংশ নেয়, তখন তাদের পারফরমেন্স নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়। তাই জাতীয় দলের পারফরমেন্স নিয়ে আলোচনা হওয়াটা স্বাভাবিক। এছাড়া কিছু আর্থিক বিষয় নিয়েও আলোচনা হবে।’

সদ্য শেষ হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তিনটি ম্যাচে জয় পায় বাংলাদেশ। পরিসংখ্যান অনুসারে, এটি টাইগারদের সবচেয়ে সফল আসর হিসেবে বিবেচিত। শ্রীলংকার বিপক্ষে জয় দিয়ে বিশ^কাপ শুরুর পর গ্রুপ পর্বে দুই সহযোগী দেশ- নেদারল্যান্ডস ও নেপালকে হারায় টাইগাররা। ২০০৭ সালে প্রথম আসরে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারানোর পর দ্বিতীয় বড় দেশ হিসেবে শ্রীলংকাকে হারানোর নজির গড়ে বাংলাদেশ।

২০০৭ সালের পর প্রথমবারের মতো এবারের আসরে সুপার এইটে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে বাংলাদেশ। কিন্তু সুপার এইটে তিন ম্যাচের সবগুলোতেই হারে টাইগাররা। ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করলেও, আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়ের সুর্বন সুযোগ হাতছাড়া করে সেমিফাইনালের টিকিট হাতছাড়া করে টাইগাররা।

সেমিফাইনালে উঠতে আফগানিস্তানের ছুঁড়ে দেওয়া ১১৬ রানের টার্গেট ১২ দশমিক ১ ওভারের মধ্যে স্পর্শ করার লক্ষ্য পেয়েছিলো বাংলাদেশ। কিন্তু দলের ব্যাটিং দেখে স্পষ্ট বুঝা গেছে সেমিতে খেলার জন্য কোন চেষ্টাই করেনি তারা। কোনভাবে ম্যাচ জয়ের পেছনে ছুটতে গিয়ে বৃষ্টি আইনে আফগানদের কাছে ৮ রানে হেরে যায় টাইগাররা।

বিশ^কাপের শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের খেলার কৌশল দেশের ভেতর-বাইরে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দেয়। ক্রিকেট ভক্ত ছাড়াও সাবেক ক্রিকেটার এবং ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরাও সমালোচনা করেছেন বাংলাদেশ দলের কৌশলের।

এদিকে বিশ^কাপে বাংলাদেশের তিন জয়ে বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস জাতীয় দলের প্রশংসা করলেও, প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের কৌশলের সমালোচনা করেন পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজন। তাই কোচের সাথে দীর্ঘ আলোচনা করে জাতীয় দলের ভালো পারফরমেন্সের প্রত্যাশা সবার।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষ হবার পরও দলের পারফরমেন্স নিয়ে এখনও কথা বলেননি বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।
২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপেও ব্যর্থতার পর তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল বিসিবি। কিন্তু এখনও সেই তদন্ত কমিটির রিপোর্ট এালার মুখ দেখেনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ