মঙ্গলবার, ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

গোপালগঞ্জে চার্চের জমি ভূমি উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ওড়াকান্ডি ব্যাপটিস্ট মিশন চার্চের ৫ একরের বেশি জমি একদল ভূমি দস্যু দখল করে নিয়েছে। একই সাথে কেটে নিয়ে গেছে মিশনের কয়েক লাখ টাকার গাছ। মিশনের জমি উদ্ধারে গীর্জা কর্তৃপক্ষ গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ।

জানাগেছে, ওড়াকান্ডি ব্যাপটিস্ট মিশন চার্চের পাশের গ্রামের প্রভাবশালী আকরাম হোসেন মোল্লা ও জামাল মোল্লা চার্চের জমি জবরদল করে নিয়েছে। গত ২৬ ডিসেম্বর তাদের বিরুদ্ধে প্রতিষ্ঠানের সভাপতি শিমন ফলিয়া গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসকের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এই অভিযোগের অনুলিপি ঢাকার দি ইউনাইটেড ব্যাপটিস্ট চার্চ এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ও গোপালগঞ্জ প্রেসক্লাবে পাঠানো হয়েছে।

আমাদের প্রতিনিধি সরেজমিনে গিয়ে খোজ নিয়ে জেনেছেন, ব্যাপটিস্ট মিশন চার্চের ৫ একর ১৯ শতাংশ জায়গা দীর্ঘদিন ধরে ক্রয় সূত্রে ভোগ দখল করে আসছিল গীর্জা কর্তৃপক্ষ। হুট করে এই জমির ক্রয় সূত্রে মালিকানা দাবি করেন এলাকার চিহ্নিত ভুমি দস্যু আকরাম হোসেন মোল্লা ও জামালগং। এই জমি থেকে প্রায় শতাধিক মেহগনি ও ফলজ গাছ কেটে নিয়ে গেছে তারা। যার আনুমানিক মূল্য ৫ লাখ টাকার বেশি।

এ বিষয়টি ব্যাপটিস্ট মিশন মন্ডলী সভাপতি বিষয়টি স্থানীয় আওমীলীগ সভাপতি ও জনপ্রতিনিধিদের অবহিত করেছেন। কিন্তু তারা এর সমাধান করতে পারেননি। উপায়ন্তর না পেয়ে মিশন কর্তৃপক্ষ আদালতের স্মরনাপন্ন হন। এ ব্যাপারে উচ্চ আদালত গত বছরের ২৬ অক্টোবর থেকে ১ বছরের জন্য স্থিতিবস্থা জারী করেন। কিন্তু প্রভাবশালী ভুমিদস্যুরা একটি বৃদ্ধাশ্রমের সাইনবোর্ড টাঙ্গিয়ে ঘর তৈরী করছেন। তারা বলেন, আমরা আদালতের কোন নোটিশ পাইনি, পেলে কাজ বন্ধ করে দেব।

ব্যাপটিস্ট চার্চ মিশনের সাধারন সম্পাদকের স্ত্রী বলেন, আমরা সন্তান সন্তাদি নিয়ে আশঙ্কার মধ্যে দিন কাটাচ্ছি। ভূমি দস্যুর সন্ত্রাসী লোকজন মটরসাইকেল নিয়ে মহড়া দিচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ