মঙ্গলবার, ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

এ্যানী-জুয়েল আটক

বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী অ্যাড. সামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভুইয়াঁ জুয়েলসহ অনেক নেতাকর্মী আটক করেছে পুলিশ।

আজ বুধবার (৭ ডিসেম্বর) বিকেল ৪টার কিছুক্ষণ পর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সদস্যরা তাদের গাড়িতে তুলে নিয়ে চলে যায়।

এর আগে বুধবার বিকেলে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে এ পর্যন্ত একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

বিকেল ৩টার দিকে হঠাৎ এই সংঘর্ষের সূত্রপাত হলে পুলিশ টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। এতে পুরো এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। সেই সঙ্গে ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে যায় গোটা নয়াপল্টন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের মতিঝিল জোনের ডিসি হায়াতুল ইসলাম খান জানিয়েছেন, সমাবেশের স্থান নিয়ে যখন আলোচনা চলছে তখন এই সংঘর্ষ শুরু হলো। আজ সকাল থেকেই পল্টনে বিএনপির নেতাকর্মীরা ভিড় করতে শুরু করেন। একপর্যায়ে পুরো রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। আমরা তাদের সরে যেতে বারবার অনুরোধ করি। কিন্তু তারা আমাদের কথা শোনেননি। একপর্যায়ে তাদের সরিয়ে দিতে গেলে তারা পুলিশের ওপর হামলা করে। এতে আমাদের কয়েকজন সদস্য আহত হয়েছেন।

এ ঘটনার পর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, সরকারের উচ্চপর্যায়ের নির্দেশে বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর পুলিশের এ গুলি চালানো সম্পূর্ণ পরিকল্পিত।

আগামী ১০ ডিসেম্বর বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ ঘিরে কয়েকদিন ধরেই উত্তেজনা চলছিল। এর মধ্যে বিএনপিকর্মীরা বুধবার সকাল থেকে নয়াপল্টনে তাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয় সামনে জড়ো হতে শুরু করেন। বিকেলে তারা যখন বিএনপি কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় অবস্থান নিয়ে স্লোগান দিচ্ছিলেন, তার এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ