শনিবার, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

একা থাকার সুবিধা-অসুবিধার কথা জানালেন পায়েল সরকার

পায়েল সরকার। ছবি: সংগৃহীত।

২০২৩ সালের শেষ থেকে টলিপাড়া একের পর এক তারকা-বিয়ের সাক্ষী থেকেছে। কিন্তু তারকাদের মধ্যে অনেকেই রয়েছেন, যাঁদের সম্পর্ক বা বিয়ে নিয়ে অনুরাগীদের কৌতূহলের শেষ নেই। যেমন অভিনেত্রী পায়েল সরকার। এখনও তিনি কেন সাত পাকে বাঁধা পড়েননি? সম্প্রতি টেলিভিশনের এক অনুষ্ঠানে তার কারণ জানিয়েছেন অভিনেত্রী।

ঠিক কী বলেছিলেন অভিনেত্রী? সঞ্চালক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সামনে পায়েল বলেন, ‘‘অনেকেই জিজ্ঞাসা করেন, আমি সিঙ্গল কেন? যে কোনও বাঙালি পরিবারে মেয়ের বাবারা আসলে এতটাই পজ়েসিভ…’’ অভিনেত্রীকে থামিয়ে দিয়ে মহারাজের প্রশ্ন, ‘‘তা হলে আপনি বাবা-মায়ের জন্য সিঙ্গল?’’

পায়েল বলেন, ‘‘একদমই তাই। আমার নিজের জন্য যোগ্য সঙ্গী ছেড়েই দাও, ওদের জন্যও সঠিক ব্যক্তি খুঁজে পাচ্ছি না।’’

বাবা-মায়ের চাপেই কি জীবনসঙ্গী খুঁজে পাচ্ছেন না পায়েল? আনন্দবাজার অনলাইনের তরফে অভিনেত্রীর কাছে প্রশ্ন রাখা হলে তিনি বলেন, ‘‘আগেই বলে রাখি, পুরো বিষয়টাই মজার ছলে বলেছি। কথাপ্রসঙ্গে এসেছে।’’

তবে তিনি সম্পর্কে রয়েছেন কি না, তা তাঁর অভিভাবকের ভাবনা ছাড়া অন্য কারও চিন্তার বিষয় নয় বলেই তিনি মনে করেন।

সম্পর্কে না থাকা এবং থাকার মধ্যে কী কী সুবিধা-অসুবিধা রয়েছে? পায়েলের কথায়, ‘‘সিঙ্গল থাকলে জীবনটা নিজের সুবিধা মতো কাটানো যায়।’’ একই সঙ্গে পায়েল বিশ্বাস করেন, কারও সঙ্গে থাকতে শুরু করলে তখন মানুষ উপলব্ধি করতে পারে একা থাকার সুবিধা বা অসুবিধা। পুরো বিষয়টাই ব্যক্তির মানসিকতার উপর নির্ভর করে।

পায়েল বললেন, ‘‘অন্য দিকে, সম্পর্কে থাকলে তখন দায়িত্বটা দু’জনের মধ্যে ভাগ হয়ে যায়। কিন্তু তা তখন আবার সকলের পছন্দ হবে কি না, সেটাও দেখতে হবে।’’ পায়েল কি এখন সম্পর্কে রয়েছেন, নাকি তিনি একা? হেসে বললেন, ‘‘আমি কেন বলব? সম্পর্কে আছি কি নেই, তা আবার আমাকেই বলতে হবে কেন, সেটাই বুঝতে পারি না!’’

সম্প্রতি, ‘আবার অরণ্যে দিন রাত্রি’ ছবিতে পায়েলকে দেখেছেন দর্শক। তাঁর অভিনীত বাংলাদেশি ‘দরদ’ ছবিটিও মুক্তির অপেক্ষায়। এ ছাড়াও, খুব দ্রুত নতুন ছবির কাজ শুরু করবেন পায়েল। আনন্দবাজার।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ