সোমবার, ৬ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ঈমানের সাথে বেঈমানি করি

এমপি শামীম ওসমান বলেছেন, ঈমানের সাথে বেঈমানি আমরা করি। আগে শতবছরে একজন মোশতাক সৃষ্টি হতো। আর এখন জেলায় জেলায় মোশতাক সৃষ্টি হয়। কে আসল কে নকল চেনা মুশকিল। গতকাল দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতি ভবনে আইনজীবী প্রণোদনা তহবিলর চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই কথা বলেন নারায়ণগঞ্জ- ৪ আসনের এই সংসদ সদস্য।

আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী এ সাংসদ আরও বলেন, সামনে অনেক কিছু মুখোমুখি করতে হবে। ওরা বসে থাকবে না, আঘাত করবে। সামনে একটা লড়াই আছে। এইটা অফ দ্য রেকর্ড বলা উচিত কিন্তু আমি রেকর্ডেই বলছি। পার্লামেন্টে সবাই বলছিলো, পদ্মা সেতু হয়েছে, মেগা প্রজেক্ট হচ্ছে। কিন্তু আমি বলি, স্বাধীনতার সাড়ে তিন বছরের মাথায় বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছি আমরা। আমাদের অনেকেই আবার পার্লামেন্টে গিয়ে শপথ নিয়েছে।

শামীম ওসমান বলেন, পদ্মা সেতুর পিলার ৪২টা, কিন্তু বাংলাদেশের পিলার শুধুমাত্র একটা- শেখ হাসিনা। ওই পিলারটাকে টার্গেট করা হচ্ছে। শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের না বাংলাদেশের সম্পদ।

তিনি আরও বলেন, প্রথমবার নারায়ণগঞ্জে বারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে আমাদেরই কিছু লোক পাল্টা প্রার্থী দিয়েছিল। ওইযে বললাম, জেলায় জেলায় মোশতাক। এটা দেওয়াতে ভালো হইছে। অতীতের যেকোন সময়ে চেয়ে এইবারের বারের ফলাফল বেশি ভালো হয়েছে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সুপ্রীম কোর্টের অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিনউদ্দিন, আইন ও বিচার বিভাগের সচিব গোলাম সারোয়ার, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের লিগ্যাল এডুকেশন কমিটির চেয়ারম্যান নজিবুল্লাহ হিরু, জেলা ও দায়রা জজ মুন্সি মশিয়ার রহমান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হক শ্যামল, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারহানা ফেরদৌস প্রমুখ। সভাপতিত্ব করেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্যদের সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। পরে প্রণোদনার চেক হস্তান্তর করেন অ্যাটর্নি জেনারেল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ