রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আমতলী উপজেলা আওয়ামীলীগ কমিটি নিয়ে ধূম্রজালের অবসান

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত আমতলী উপজেলা আওয়ামীলীগ কমিটি নিয়ে ধূম্রজালের অবসান হয়েছেন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবীদ আ.ফ. ম বাহাউদ্দিন নাসিম মুঠোফোনে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত কমিটিই সঠিক। তার দেয়া কমিটিই বরগুনা জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি সাংসদ এ্যাড. ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু ও সাধারণ সম্পাদক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ জাহাঙ্গীর কবির অনুমোদন দিবেন বলে আমার বিশ্বাস

জানাগেছে, নয় বছর পরে আমতলী উপজেলা আওয়ামীলীগ সম্মেলন গত ৩০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের ২০ দিন পরে ১৯ নভেম্বর রাতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ আমতলী উপজেলা কমিটি ঘোষনা করেছেন। এ কমিটিতে আলহাজ্ব গোলাম সরোয়ার ফোরকানকে সভাপতি এবং জিএম ওসমানী হাসানকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। কমিটি নিয়ে আমতলী উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের মধ্যে দ্বিধাদ্বন্ধের সৃষ্টি হয়। সাবেক কমিটির নেতাকর্মীরা এ কমিটি সঠিক নয় বলে দাবী করছেন। অপর দিকে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া কমিটিকে সাধারণ নেতাকর্মীরা স্বাছন্দে গ্রহন করে সংবর্ধনা জানিয়েছেন।

আমতলী উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক জিএম ওসমানী হাসান বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা মানবতার মা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতে যত দিন থাকবে দেশ, পথ হারাবেনা বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে তৃণমুল নেতাকর্মীদের নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবো।

আমতলী উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ্ব গোলাম সরোয়ার ফোরকান বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ আমতলী উপজেলা কমিটি ঘোষনা করেছেন। উপজেলা আওয়ামীলীগ সুসংগঠিত রাখতে প্রাণপণ চেষ্টা করবো এবং তৃণমুল ও দলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের যথাযথ মুল্যালন করা হবে।

বরগুনা জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ জাহাঙ্গীর কবির আমতলী উপজেলা আওয়ামীলীগ কমিটি নিয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবীদ আ.ফ. ম বাহাউদ্দিন নাসিম মুঠোফোনে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ঘোষিত কমিটিই সঠিক। এ নিয়ে দ্বিধাদ্বন্ধের কোন অবকাশ নেই। তার দেয়া কমিটিই বরগুনা জেলা সভাপতি সাংসদ এ্যাড. ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু ও সাধারণ সম্পাদক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ জাহাঙ্গীর কবির অনুমোদন দিবেন বলে আমি মনে করি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ