রবিবার, ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়ার ‘দৈনিক পিপলস লাইফ’-এর সম্পাদকের দায়িত্ব গ্রহণ

প্রখ্যাত সাংবাদিক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া সম্প্রতি দৈনিক পিপলস লাইফ-এর সম্পাদকের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন।

দ্য ডেইলি পিপলস লাইফ হচ্ছে, নেক্সট পাবলিকেশন্স লিমিটেডের মালিকানাধীন একটি প্রতিষ্ঠান। সম্পাদক মন্ডলীর চেয়ারম্যান হাসান রহমান এবং প্রকাশক নাফিসা জুমিনা মাহমুদের নেতৃত্বে প্রতিষ্ঠানটি পরিচালিত হয়।

পাঁচ দশকের বর্ণাঢ্য কর্মজীবনের অধিকারী ভূঁইয়ার সাংবাদিকতার যাত্রা শুরু ১৯৭৩ সালে। এ সময় তিনি বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস)’র স্টাফ রিপোর্টার/সাব-এডিটর পদে যোগদান করেন। সুদীর্ঘ ৪৪ বছর সরকারি বার্তা সংস্থায় দায়িত্ব পালনকালে তিনি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান সম্পাদকের দয়িত্ব পালনকালে তিনি বাসস ত্যাগ করেন।

ভূঁইয়া সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য ডেইলি বাংলাদেশ অবজারভার-এর কন্ট্রিবিউটারি এডিটরের দায়িত্ব পালন করেন এবং দক্ষতার পরিচয় দেন; ২০১৬ সালের প্রথমদিকে তিনি বিডিজি-মাগুরা গ্রম্নপে যোগ দেন। সেখানে তিনি ইংরেজি দৈনিক “বাংলাদেশ নিউজ. এবং বাংলা দৈনিক ‘বাংলাদেশের খবর’-এর সম্পাদকের যুগপৎ দায়িত্ব পালন করেন। উভয় পত্রিকার প্রকাশক ছিল বিডিজি-মাগুরা গ্রম্নপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান ‘বাংলাদেশ নিউজ অ্যান্ড এন্টারটেনমন্ট’।

আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া ১৯৫২ সালে বরিশালে জন্মগ্রহণ করেন। শিক্ষাজীবনে তিনি বরিশাল জিলা স্কুল থেকে ১৯৬৬ সালে প্রথম বিভাগে এসএসসি পাস করেন। এরপর বি.এম. কলেজ, বরিশাল থেকে এইচএসসি পাস করার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ ভোলা কলেজ থেকে বিএসসি ডিগ্রি লাভ করেন। মেধাবী ছাত্র আজিজুল ইসলাম ভূঁইয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদে পড়ার সুযোগ পান এবং কার্জন হলে প্রাণিবিদ্যায় স্নাতকোত্তর শ্রেণিতে অধ্যয়ন করেন। পরবর্তীতে তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতায় স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। বাসস-এ দায়িত্ব পালনকালে তিনি নয়াদিলিস্নর মর্যাদাপূর্ণ ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ম্যাস কমিউনিকেশন (আইআইএমসি) থেকে নিউজ এজেন্সি সাংবাদিকতায় উচ্চতর ডিপেস্নামা অর্জন করেন।

তিনি দেশ-বিদেশের বিভিন্ন পত্রপত্রিকা ও জার্নালে লেখালেখি করেন এবং সমসাময়িক ঘটনার উপর একাধিক পুস্তক রচনা করেন। তার লেখা বইয়ের মধ্যে রয়েছে ‘শেখ হাসিনার শাসনামলের অনুগল্প’, বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে তথ্য সন্ত্রাস ও তার জবাব, বিএনপি ও সাম্প্রদায়িক রাজনীতি, বঙ্গবন্ধুর জীবন-ই বাঙাল জাতির রাষ্টবিজ্ঞান, মুক্তিযুদ্ধ : দেরাদুনের স্মৃতি, ঊসধবৎমহপব ড়ভ ইধহমষধফবংয ধহফ ইবহমধষর ঘধঃরড়হধষরংস প্রমুখ উলেস্নখযোগ্য।

ভূঁইয়া সাংবাদিকতার পাশাপাশি বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে), ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে), জাতীয় প্রেস ক্লাব ও চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে)সহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও পেশাগত সংগঠনে সক্রিয়ভাবে জড়িত রয়েছেন।

সাংবাদিকতার বাইরেও ভূঁইয়ার পদচারণা সুবিস্তৃত। তিনি বাংলাদেশ ছাত্র লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য হিসেবে সক্রিয় ছাত্র রাজনীতিতে যুক্ত হন এবং ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধে শরিক হন। তিনি ভারতের দেরাদুনে টান্ডুয়া মিলিটারি একাডেমি থেকে সামরিক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। এরপর বাংলাদেশ লিবারেশন ফোর্স বা মুজিব বাহিনীর সাব-ডিভিশনাল কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

সর্বশেষ

ফেসবুকে যুক্ত থাকুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষঃ