12142019শনি
শিরোনাম:
শুক্রবার, 17 নভেম্বর 2017 11:02

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘ কমিটিতে প্রস্তাব পাস

নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক জাতিসংঘের এজেন্ডা নির্ধারণের একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে রোহিঙ্গা ইস্যু এজেন্ডা হিসেবে গৃহীত হয়েছে। এতে ভোটাভুটির মাধ্যমে রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান বন্ধে প্রস্তাব পাশ করেছে সদস্যরাষ্ট্রগুলো। প্রস্তাবের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেনসহ ১৩৫টি দেশের ভোট পড়ে। বিপক্ষে ভোট পড়ে চীন, রাশিয়া সহ ১০টি দেশের। এতে ভোট দানে বিরত ছিল ভারতসহ ২৬টি দেশ। রোহ্ঙ্গিা নির্যাতনের ঘটনায় সরব অ্যাঞ্জেলিনা জোলি বৈঠকে রোহিঙ্গাদের ওপর সামরিক অভিযান বন্ধে মিয়ানমার কর্তৃপক্ষকে আহবান জানানো হয়। সেইসাথে দেশ থেকে বিতাড়িত ও বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরে আসার এবং এবং তাদের পূর্ণ নাগরিকত্বের অধিকার নিশ্চিত করার বিষয়েও গুরুত্বারোপ করা হয়। বৃহস্পতিবার জাতিসংঘে ৫৭ মুসলিম দেশের সংগঠন ওআইসির আহবানে এ ভোটাভুটি অনুষ্ঠিত হয়। সাধারণ পরিষদের মানবাধিকার কমিটি এ ভোটাভুটি অনুমোদন করে। এতে মিয়ানমারের ঘনিষ্ট প্রতিবেশি চীন, সেইসাথে রাশিয়া, ফিলিপাইন, ভিয়েতনাম ও লাওসসহ ১০টি দেশ বিপক্ষে অবস্থান নেয়। এদিকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে জড়িয়ে পড়া বাংলাদেশের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে দেশটির ঘনিষ্ট মিত্র ভারত। সেইসাথে দক্ষিণ এশিয়ার নেপাল, শ্রীলংকাসহ ২৬টি দেশ এ ভোটাভুটিতে নিজের অবস্থান জানাতে অনিচ্ছা প্রকাশ করে। রাখাইনে গণহত্যার শুরু থেকে ভারত সরকার এ ইস্যুতে বাংলাদেশের পাশে আছে দাবী করা হলেও এ ভোটাভুটিতে তারা অংশ নিতে বিরত থাকে। তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও তদন্তে দু’জন বিশেষজ্ঞ পাঠাচ্ছে যুক্তরাজ্য উল্লেখ্য, গত আগস্ট মাসের শেষের দিকে রাখাইনের রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের হামলার পর মিয়ানমার সেনাবাহিনী সেখানে জাতিগত নিধন শুরু করে। তাদের সাথে যোগ দেয় স্থানীয় উগ্রবাদী বৌদ্ধ জনগোষ্ঠী। নির্বিচারে হত্যা, গণধর্ষণ, নির্যাতন, লুটপাট, অগ্নিদগ্ধের শিকার হয়ে প্রায় ৬ লাখ ২০ হাজারের মত রোহিঙ্গা জনগণ পার্শ্ববর্তী দেশ বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। আক্রান্ত এ সব মানুষকে আশ্রয় দিতে বাংলাদেশ সরকার দেশটির সীমান্ত খুলে দেয় এবং তাদের পাশে দাঁড়ায়।
পড়া হয়েছে 241 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 17 নভেম্বর 2017 11:08

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা