09162019সোম
শিরোনাম:
বৃহস্পতিবার, 07 মে 2015 13:58

ব্রিটেনের নির্বাচনে ভোটগ্রহণ


ডেস্ক
ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সারাদেশের অন্তত ৫০ হাজার ভোটকেন্দ্রে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টা থেকে (বাংলাদেশ সময় দুপুর ১২টা) ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে, চলবে রাত ১০টা পর্যন্ত। খবর- বিবিসি ও এএফপির
 
নির্বাচনে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ হাউস অব কমন্সের ৬৫০টি আসনে প্রতিনিধি নির্বাচন করবেন ভোটাররা। বৃহস্পতিবার রাতেই নির্বাচনের ফল আসা শুরু হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
 
আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা করা হবে আগামীকাল শুক্রবার। তবে আজ ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার পরপরই বুথফেরত জরিপের ফল জানা যাবে।
 
বৃহস্পতিবার ভোট শুরুর আগে ডাকযোগে ভোট দিয়েছেন কিছু নাগরিক। ব্রিটেনের আগের নির্বাচনগুলোতে ডাকযোগে দেওয়া ভোটের পরিমাণ ছিল উল্লেখ করা মতো। সর্বশেষ ২০১০ সালের নির্বাচনে মোট কাস্টিং ভোটের প্রায় এক চতুর্থাংশের বেশি ছিল ডাকযোগে পাওয়া।
 
হাউস অব কমন্সের সদস্য নির্বাচন ছাড়াও দেশটির ভোটাররা আজ স্থানীয় সরকার নির্বাচনে ভোট দিবেন। কয়েকটি শহরের মেয়র নির্বাচনের পাশাপাশি সারাদেশে ৯ হাজারের বেশি কাউন্সিলর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আজ।
 
সরকার গঠনের জন্য আজকের নির্বাচনে যে কোনো দলকে হাউস অব কমন্সের অন্তত ৩২৬টি আসন পেতে হবে।  আজকের নির্বাচনে স্কটিশ জাতীয়তাবাদী এসএনপি পার্টির দিকেই সবার নজর থাকবে বলে এএফপির এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। কনজারভেটিব বা লেবার পার্টির তুলনায় কম হলেও এবার দলটির পক্ষে ব্যাপক সমর্থন দেখা গেছে জনমত জরিপগুলোতে। বিশ্লেষকদের ধারণা নির্বাচনে কোনো দলই যদি সরকার গঠনের মতো একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে ব্যর্থ হয় তাহলে এসএনপিই হবে 'কিংমেকার'।
 
গত বছরের সেপ্টেম্বরে স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতার জন্য অনুষ্ঠিত গণভোটে দলটি হারলেও নির্বাচনে স্কটল্যান্ডের ৫৯ আসনের মধ্যে অন্তত ৫০টি এসএনপি লাভ করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০১০ সালের নির্বাচনে এসএনপি সেখানে ৪৪টি আসন পেয়েছিল। স্কটল্যান্ডে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলে দলটি আবারও স্বাধীনতার জন্য গণভোটের আয়োজন করতে পারে।
পড়া হয়েছে 389 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: বৃহস্পতিবার, 07 মে 2015 14:03