09282020সোম
শিরোনাম:
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক: নয়াদিল্লি : গত সপ্তাহেই ভারতের রাডারে ধরা পড়েছিল চিনা বায়ুসেনার গতিবিধি। পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর জুড়ে চিনা বায়ুসেনার আনাগোনা সন্দেহ বাড়ায় ভারতের। পাক অধিকৃত কাশ্মীরের স্কার্দুতে অবতরণ করে চিনা বায়ুসেনার বিমান। তারপর থেকেই লাদাখে চিনা বায়ুসেনার নজরদারি বাড়ার ঘটনায় বিশেষ পাক যোগ খুঁজে পাচ্ছে নয়াদিল্লি। ফলে গোটা পরিস্থিতির দিকে কড়া নজর রেখেছে ভারত। জাতীয় সংবাদমাধ্যমগুলি জানাচ্ছে স্কার্দুতে খুব নিয়ন্ত্রিত গতিবিধি নজরে এসেছে ভারতীয় রাডারের মাধ্যমে। এর প্রেক্ষিতে, বিভিন্ন এয়ারবেসে ভারতীয় বায়ুসেনাও তৎপরতা বাড়িয়েছে। সেনাবাহিনীতেও একেবারে হাই-অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। পাকিস্তান সীমান্তে ক্রমশ সেনা বাড়ানো হচ্ছে বলেও ভারতীয় সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে। ভারত-পাক সেক্টরে সেনাকে সর্বোচ্চ অ্যালার্টে রাখা হয়েছে…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক: চীনা সরকার বা চীনের কমিউনিস্ট পার্টির কাছ থেকে কারা কবে কত সুবিধা নিয়েছে, তা নিয়ে ভারতে ক্ষমতাসীন বিজেপি ও প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের মধ্যে বিতর্ক তুঙ্গে উঠেছে। ২০০৪-০৫ সাল নাগাদ কংগ্রেসের এনজিও বা থিঙ্কট্যাঙ্ক রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন চীনের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ সাহায্য নিয়েছিল – বিজেপি এই অভিযোগ সামনে আনার পর কংগ্রেসও তাদের উদ্দেশে পাল্টা দশ দফা প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছে। বিজেপির শীর্ষ নেতারা কে কবে চীনের আমন্ত্রণে সে দেশে গেছিলেন কংগ্রেসের পক্ষ থেকে তার ফিরিস্তিও পেশ করা হয়েছে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, দুই দলের এই ঝগড়ায় চীন সীমান্তে নিহত ভারতের জওয়ানদের ইস্যুটাই আসলে চাপা পড়ে যাচ্ছে। দিনদুয়েক…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক: তিব্বত মালভূমিতে অবস্থানরত চীনা সৈন্যদের মার্শাল আর্ট শেখানোর জন্য ২০জন প্রশিক্ষক পাঠাচ্ছে চীন। এই সিদ্ধান্তের কারণ নিয়ে আনুষ্ঠানিক কোন বক্তব্য দেয়া হয়নি। তবে চীনা সীমান্ত রক্ষীদের সাথে সংঘর্ষের পর অন্তত ২০ জন ভারতীয় সৈন্য নিহত হওয়ার পরপর তাদের এই সিদ্ধান্ত এলো। দুই দেশের মধ্যে ১৯৯৬ সালের সমঝোতা অনুসারে, ওই এলাকায় কোন পক্ষই আগ্নেয়াস্ত্র বা বিস্ফোরক বহন করে না। ভারত যদিও জানিয়েছে, ২০ জন সৈন্য নিহত হওয়ার পাশাপাশি তাদের ৭৬ জন আহত হয়েছে, তবে চীন তাদের সৈন্য হতাহতের ব্যাপারে কোন তথ্য জানায় নি। হংকংয়ের গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, মার্শাল আর্ট প্রশিক্ষক পাঠানোর এই খবরটি চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমগুলোয় গত…
রবিবার, 28 জুন 2020 09:00

দিল্লির আকাশে পঙ্গপাল

নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক: ভারতের রাজধানী দিল্লির বিভিন্ন এলাকায় শনিবার সকালে লক্ষ লক্ষ পঙ্গপাল ঢুকে পড়েছে। দিল্লি লাগোয়া গুরগাঁওয়ের ওপর দিয়ে পঙ্গপালের দল উড়ে যায়। কোনও ক্ষতি তারা করে নি গুরগাঁও বা দিল্লির, কিন্তু যেদিকে তাদের যেতে দেখা গেছে, সেই উত্তরপ্রদেশে ফসলের বড়সড় ক্ষতি তার করতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। বেলা তখন এগারোটা পনেরো। গুরগাঁওয়ের বহুতলের পনেরো তলার ঘরে বন্ধুর সঙ্গে কথা বলছিলেন জয় ভট্টাচার্য। হঠাৎই তিনি একটানা ঝিঁঝি পোকার ডাকের মতো, কিন্তু তার থেকে কয়েকশো গুন জোরালো শব্দ শুনতে পেয়েছিলেন। ‍''তারপরে জানলা দিয়ে তাকিয়ে দেখি হাজারে হাজারে পঙ্গপাল ঠিক জানলার বাইরেই। আমার বন্ধুও গুরগাঁওতেই থাকে। ওকে বলি দেখ, পঙ্গপাল…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক: লকডাউনে নেপালে আটকে পড়া ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিভিন্ন রেজিমেন্টে কর্মরত পাঁচ হাজার নেপালি জওয়ানকে দ্রুত ফিরিয়ে আনতে চাইছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। তাদের অনুরোধ পেয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক কোনও হয়রানি ছাড়াই দ্রুত ওই জওয়ানদের নেপাল থেকে নিয়ে এসে বিভিন্ন রেজিমেন্টে যোগদানের ব্যবস্থা করছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রককে ওই জওয়ানদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারেরও। করোনার জন্য ভিন্‌ দেশ থেকে এ দেশে আসার ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা আছে। বিদেশি উড়ানও চালু করেনি কেন্দ্র। এমন সময়ে নেপালের জওয়ানদের দেশে ফেরাতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক তৎপর হয়ে উঠেছে কেন? নিরাপত্তা সংস্থাগুলির বক্তব্য, নেপালি বা গোর্খা জওয়ানেরা পাহাড়ের বাসিন্দা। পাহাড়ি পরিবেশে কম অক্সিজেনেও…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক : যে পেট্রোলিং পয়েন্ট (পিপি)-১৪-কে ঘিরে প্রাণ হারাল ২০ জন সেনা, তার কাছে ফের ভারতের এলাকা দখল করে বসে পড়েছে চিন সেনারা। তারই মধ্যে ভারত জানিেয়ছে, লাদাখের স্থিতাবস্থা বদলের চেষ্টার ফল ভুগতে হতে পারে চিনকে। সেনা সূত্রের খবর, নতুন পরিকাঠামো তৈরি না-করলেও, পয়েন্ট ১৪-সহ গোটা এলাকায় চিনা সেনার উপস্থিতির কারণে পেট্রোলিং পয়েন্ট ১০, ১১, ১১এ, ১২ এবং ১৩-এ পৌঁছতে পারছে না ভারতীয় সেনারা। এ দিকে দু’দিনের সফর শেষে দিল্লি ফিরে আজ প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহের কাছে সীমান্ত পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করেন সেনাপ্রধান এম এম নরবণে। এর পরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের কথা রাজনাথের। চিনে ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিক্রম মিস্রিও এ দিন…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক: পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বৃহস্পতিবার দেশটির জাতীয় সংসদে দেওয়া এক ভাষণে আল কায়দার সাবেক শীর্ষনেতা ওসামা বিন লাদেনকে 'শহীদ' আখ্যায়িত করার পর ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েছেন। ইসলামাবাদ ও ওয়াশিংটনের সম্পর্কের অবনতি বিষয়ে পাকিস্তানের সংসদে কথা বলার সময় এই মন্তব্য করেন তিনি। এরপর দেশটির বিরোধীদলগুলো ওই মন্তব্যের কারণে ইমরান খানের তীব্র সমালোচনা করে। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্প্রতি তাদের এক প্রতিবেদনে পাকিস্তানকে 'আঞ্চলিকভাবে সক্রিয় সন্ত্রাসী গোষ্ঠী'র জন্য নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে উল্লেখ করে। এরপর ওই প্রতিবেদনের বিরুদ্ধে একটি বিবৃতি প্রকাশ করে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ওই বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়, 'এই অঞ্চলে আল কায়দার শক্তি অনেক কমেছে…
নিউজ ফ্ল্যাশ প্রতিবেদক: রুদ্ধদ্বার ভিডিয়ো বৈঠকে গত কাল ভারত এবং চিনের মধ্যে সুর নরম ছিল না বলে দাবি কূটনৈতিক সূত্রের। তার বহিঃপ্রকাশ ঘটল চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই। বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ও নয়াদিল্লিতে নিযুক্ত চিনের রাষ্ট্রদূত কিছুটা কৌশলে পরস্পরের দিকে আঙুল তুললেন আজ। সব মিলিয়ে কূটনীতিকদের মতে, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় চোখে চোখ রেখে দাঁড়িয়ে থাকা যুযুধান দুপক্ষের সেনা সাময়িক ভাবে হয়তো পিছু হটবে। কিন্তু গালওয়ান উপত্যকাকে পুরোপুরি ড্রাগনের নিঃশ্বাসমুক্ত করার জন্য এখনও লম্বা রাস্তা হাঁটা বাকি। ভারতের অভিযোগ, একতরফা ভাবে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার স্থিতাবস্থা এবং সীমান্ত চুক্তি ভেঙেছে চিন। মে-র গোড়াতেই বিপুল সেনা সমাবেশ ঘটিয়েছে সেখানে। প্রায় একই সময়ে দিল্লিতে চিনা রাষ্ট্রদূত এক সাক্ষাৎকারে…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক: নয়াদিল্লি: অবশেষে ভারতীয় সেনার হাতে আসতে চলেছে অত্যাধুনিক মিডিয়াম রেঞ্জ সারফেস টু এয়ার মিসাইল সিস্টেম (MRSAM)। খুব শীঘ্র এটি ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে আসবে বলে জানা গিয়েছে। জানা যাচ্ছে, শত্রুপক্ষের ব্যালিস্টিক মিসাইল, ফাইটার জেট কিংবা অ্যাটাক হেলিকপ্টার মাঝ আকাশ থেকে নামিয়ে আনতে এই অত্যাধুনিক সিস্টেম ব্যবহার করা হয়। ৭০ কিলোমিটার দূর থেকেও ফাইটার জেট নামিয়ে আনা সম্ভব এই সিস্টেমে। ইজরায়েলের অ্যারোস্পেস ইন্ডাস্ট্রিজ-এর সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এই সিস্টেম তৈরি করেছে ডিআরডিও। শুধু তাই নয়, এটি সবথেকে অত্যাধুনি মিসাইল সিস্টেম। MRSAM যে কোনও ধরনের ব্যালিস্টিক মিসাইল, এয়ারক্রাফট, এমনকি ড্রোনও নামিয়ে আনা সম্ভব অত্যাধুনিক এই মিসাইল সিস্টেমের সাহায্যে। বর্তমানে কেবলমাত্র ভারতীয়…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক: পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় ১৫ জুন হওয়া সংঘর্ষস্থলের কাছে বড় মাপের নির্মাণ কাজ চালানোর ছবি ধরা পড়ল উপগ্রহচিত্রে। বিষয়টি সামনে এল এমন সময়ে, যখন দু’দিন আগেই দু’দেশ প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে সেনা সরাতে রাজি হয়েছে। প্রাক্তন সেনা কর্তাদের আশঙ্কা, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে চিনা সেনারা ক’দিন পরেই সরে হয়তো যাবে, কিন্তু এরা ভারতের যে অংশ দখল করে নির্মাণকাজ চালাচ্ছে, তা থেকে সরে আসবে কি না, সেটা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। গত ২০ জুন গালওয়ান নদী উপত্যকায় পেট্রোল পয়েন্ট ১৪-এ (গত সপ্তাহের সংঘর্ষস্থল) কেবল একটি তাঁবু ছিল। উপগ্রহ চিত্রে দেখা গিয়েছে, সেই এলাকায় রীতিমতো কাঠামো তৈরি করে সেনাঘাঁটি বানিয়ে ফেলেছে…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক: পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় চোখে-চোখ রেখে দাঁড়ানো অবস্থান থেকে অবশেষে সরে আসতে রাজি হল ভারত ও চিন। তবে আজই চিনা সেনার সংঘর্ষে আহত ভারতীয় জওয়ানদের দেখতে লাদাখে গিয়ে সেনাপ্রধান এম এম নরবণে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন যে, ভারতের পক্ষ থেকে কোনও উস্কানি দেওয়া না-হলেও সীমান্ত পাহারায় বিন্দুমাত্র শিথিলতা দেখানো হবে না। গত কাল চুসুল-মলডো সীমান্তে বৈঠকে বসেন লেফটেন্যােন্ট জেনারেল হরিন্দর সিংহ ও চিনা মেজর জেনারেল লিউ লিন। সেনা সূত্রে বলা হচ্ছে, ১১ ঘণ্টার ম্যারাথন বৈঠকে পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় যে সব এলাকায় দু’দেশের সেনা মুখোমুখি দাঁড়িয়ে, সেখান থেকে পিছিয়ে আসার সিদ্ধান্ত হয়েছে। সরানো হবে বাড়তি সেনা ও কামান।…

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা