12152019রবি
শিরোনাম:
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক রাজ্য সরকার পরিস্থিতি সামলাতে না পারলে বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করার হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা৷ তিনি বলেন, “আমরা নির্বাচিত সরকারকে ফেলতে চাই না। কিন্তু এই অগ্নিগর্ভ অবস্থা যদি আর কয়েকদিন চলে, তবে রাষ্ট্রপতি শাসন ছাড়া উপায় নেই। ২০২০ শুরুতেই বিদায় নিতে হবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।” কোলকাতা ২৪। ADVERTISEMENT Learn More POWERED BY PLAYSTREAM সংসদের দুই সভায় নাগরিকত্ব সংশোধন বিল পাশ হওয়ার পর গত বৃহস্পতিবার রাতে তাতে সই করেছেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। পরেরদিন অর্থাৎ শুক্রবার দুপুরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়ে দিয়েছেন, বাংলায় নাগরিকত্ব আইনের বাস্তব প্রয়োগ করতে দেবেন না। এও বলেছেন, কেন্দ্র আইন করতেই পারে, কিন্তু রাজ্যে…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক কেউ বলছেন, এক লক্ষের মতো লোক। কারও মতে, একটু কম। ভিড়ে ঠাসা দিল্লির রামলীলা ময়দান আজ গর্জে উঠল একটি বাক্যে: ‘‘আমার নাম রাহুল সাভারকর নয়, আমার নাম রাহুল গাঁধী।’’ দিল্লিতে আজ রাহুল গাঁধীকে ফেরানোর মঞ্চ সাজানো হবে, জানত বিজেপি। গত কালই সংসদের শেষ দিনে ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’ মন্তব্যের জন্য রাহুলকে বিঁধতে নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ নামিয়েছিলেন পুরো দলকে। তাঁকে ক্ষমা চাইতে বলে সরকার পক্ষই ভেস্তে দিয়েছে সংসদ। কাল থেকেই তেতে ছিলেন রাহুল। আজ ফিরলেন পুরনো ঝাঁঝে। আনন্দবাজার পত্রিকা। মঞ্চে মাইক হাতে বললেন, ‘‘আমার নাম রাহুল সাভারকর নয়, আমার নাম রাহুল গাঁধী। আমি সত্যের জন্য ক্ষমা চাইব না। মরে…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক শান্তিপূর্ণ পথে প্রতিবাদের ডাক দিয়ে নয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় নামলেন সমাজের বিশিষ্টজনেরা। শনিবার কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক বৈঠকে কবি জয় গোস্বামী বলেন, ‘‘ভারতে এখন ঘোর দুর্দিন। এই আইনকে প্রত্যাহার করতে সব ধরনের মানুষকে একত্রিত হয়ে শান্তিপূর্ণ ভাবে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।’’ অর্থনীতিবিদ অভিরূপ সরকারের মতে, ‘‘বিভেদের সুযোগ নিয়ে কিছু অসাধু মানুষ গন্ডগোলের সৃষ্টি করে। কিন্তু আমাদের সতর্ক হয়ে শান্তিপূর্ণ পথে প্রতিবাদ করতে হবে।’’ শিল্পী শুভাপ্রসন্ন বলেন, ‘‘আন্দোলনকারীদের প্রতি আমাদের আবেদন, শান্তির পথে প্রতিবাদ করুন। নইলে যাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন তারাই সুবিধা পেয়ে যাবে।’’ অসুস্থতার কারণে হাজির হতে না-পারলেও সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায় এবং গায়ক কবীর সুমন তাঁদের লেখা পাঠিয়েছেন।…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক নতুন নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে শনিবারও অশান্ত থাকল রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চল। মুর্শিদাবাদ, উত্তর ২৪ পরগনা, হাওড়ার বিভিন্ন এলাকায় রাস্তা এবং রেল লাইন অবরোধ করে একাধিক ট্রেনে একের পর এক আগুন ধরানো হয়, বিভিন্ন স্টেশনে চলে ভাঙচুর। আগুন ধরানো হয় টোল প্লাজ়ায় এবং অনেক বাসেও। মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর স্টেশনে ভাঙচুর চালিয়ে ট্রেনে পাথর ছোড়া হয়। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত হাসনাবাদ, লালগোলা-কৃষ্ণনগর শাখায় ট্রেন চলেনি। সব মিলিয়ে ভোগান্তি হয় সেই সাধারণ মানুষের। আনন্দবাজার পত্রিকা। এই পরিস্থিতিতে শান্তির বার্তা ফের দেওয়ার পাশাপাশি হুঁশিয়ারিও দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শান্তিপূর্ণ ভাবে আন্দোলনের অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, থানা, স্টেশন-সহ সরকারি, বেসরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর বা কোনও…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক চল্লিশ বছর আগে বোরকা পরে বাংলাদেশ থেকে ভারতে গিয়েছিলেন রূপা গাঙ্গুলী। আজ তিনি দেশটির সংসদ সদস্য। পশ্চিমবঙ্গের অভিনেত্রী। কিন্তু এতে সমস্যা কী? আসলে সমস্যাটা দেখা দিয়েছে তার একটি মন্তব্য নিয়ে। আর সেই মন্তব্য এখন ভারতে ঝড় তুলেছে। সম্প্রতি লোকসভার পর রাজ্যসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (সিএবি) পাস। এই বিল পাস হওয়ার পর রূপা গাঙ্গুলী টুইট করেন। এই সংসদ সদস্য লেখেন, ‘আমি তো খান টাইগারের বেগম হয়ে যাচ্ছিলাম। আমাকে অপহরণ করতে এসেছিল। সে রাতে যদি আমি এবং আমার মা বোরকা পরে দিনাজপুর থেকে পালাতে না পারতাম। তবে আজ বিজেপির এমপি হতে পারতাম না।’ রূপা গাঙ্গুলী আরো বলেন, ‘ভারত আমাদের…
নিউজ ফ্ল্যাশ ভারতের সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে হিংসাত্মক বিক্ষোভ হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ আর মেঘালয়ে। শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ আর হাওড়াতে ব্যাপক বিক্ষোভের সময়ে বেশ কয়েকটি ট্রেন আর দুটি রেল স্টেশনে ভাঙচুর করা হয়েছে, জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে বাস। মুর্শিদাবাদের বেলডাঙ্গা আর হাওড়ার উলুবেড়িয়া স্টেশন দুটিতে বিক্ষোভকারীরা ব্যাপক ভাঙচুর চালিয়েছে নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে। উলুবেড়িয়া স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা কয়েকটি ট্রেনেও পাথর ছোঁড়া হয়। তারপরে দুটি স্টেশনের সামনেই আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। বন্ধ হয়ে যায় ট্রেন লাইন। হাওড়া থেকে খড়্গপুর ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। বেশ কিছু দূরপাল্লার ট্রেন আটকিয়ে পড়েছে। বেলডাঙ্গা স্টেশনেও একই ভাবে ভাঙচুর চলে শুক্রবার। ওই এলাকার কয়েকটি বাস আর…
নিউজ ফ্ল্যাশ প্রতিবেদক ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধন আইনকে মুসলিমদের প্রতি বৈষম্যমূলক বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘ। গতকাল জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক সংস্থা এ বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে ভারত সরকারকে আইন সংশোধনের আহ্বান জানিয়েছে। সংস্থাটি বলেছে, এই আইনের প্রকৃতিগত বৈশিষ্ট্য হলো বৈষম্য। খবর রয়টার্সের সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় মানবাধিকার সংক্রান্ত জাতিসংঘের মুখপাত্র জেরেমি লরেন্স গতকাল এক ব্রিফিংয়ে বলেছেন, আমরা জানি যে এই আইনের বৈধতা ভারতের সর্বোচ্চ আদালতে চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে এবং আমাদের আশা মানবাধিকার সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক আইনে ভারতের যে দায়বদ্ধতা রয়েছে আদালত তা বিবেচনায় নিয়ে নাগরিকত্ব আইনটির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে। তিনি জানান, এই আইন উল্লিখিত ছয় ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মতো মুসলিম শরণার্থীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কথা বলে না।…
অমিত শাহ রাজ্যসভায় জানাইলেন, মুসলমান শরণার্থীদের ভারতে ঠাঁই হইবে না। ধর্মের কারণেই রাষ্ট্র তাঁহাদের নাগরিকত্ব দিবে না। সংসদ নামক পরিসরটির কোনও মূল্য যে তাঁহাদের নিকট নাই, এই কথাটি অমিত শাহেরা ইতিমধ্যে বিলক্ষণ বুঝাইয়া দিয়াছেন— কিন্তু, তাহার পরও, সেই সংসদে দাঁড়াইয়া এ-হেন অসাংবিধানিক একটি কথাকে আইনে পরিণত করা কি সম্ভব হইবে, তাহা লইয়া সন্দেহ ছিল। ভারতীয় সংবিধান নাগরিকের ধর্মবিচার করে না। রাষ্ট্রীয় রাজনৈতিক পরিসরে ধর্মের কোনও গুরুত্ব এই সংবিধানের চোখে নাই। কাজেই, কোন শরণার্থী নাগরিকত্ব পাইবেন, আর কে পাইবেন না, সেই বিচারেও ধর্ম স্বভাবতই মাপকাঠি হইতে পারে না। অমিত শাহদের পৌরুষের নিকট সংবিধান তুচ্ছ হইল। লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও বিরোধী সংখ্যাকে অনায়াসে…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডোস্ক রাহুল গাঁধীর ‘রেপ ইন ইন্ডিয়া’ মন্তব্যের জেরে বিতর্কে উত্তাল সংসদ। লোকসভায় রাহুলকে তীব্র আক্রমণ করলেন স্মৃতি ইরানি সহ বিজেপি সাংসদরা। বৃহস্পতিবার ঝাড়খণ্ডের একটি সভায় রাহুলের এই মন্তব্য করেন রাহুল। তাঁকে ক্ষমা চাওয়ার দাবিতে ওয়েলে তুমুল হই হট্টগোলর করেন শাসক দলের সাংসদরা। তার জেরে দুপুর পর্যন্ত লোকসভার অধিবেশন মুলতুবি করে দেন স্পিকার ওম বিড়লা। যদিও রাহুল গাঁধী অবস্থানে অনড় থেকে সংসদের বাইরে বলেছেন, তিনি ক্ষমা চাইবেন না। বিজেপির বক্তব্য, এই মন্তব্য করে ধর্ষণে উস্কানি দিয়েছেন রাহুল গাঁধী। স্মৃতি ইরানির তোপ, ‘‘দেশের ইতিহাসে এই প্রথম কোনও নেতা আহ্বান জানালেন, মহিলাদের ধর্ষণ করুন। এটাই কি রাহুল গাঁধীর বার্তা দেশকে? ওঁর…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক এ বার ভারতে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অধিকার রক্ষা নিয়ে সরব হল মার্কিন সরকার। মোদী সরকারের উদ্দেশে কড়া বার্তা দিয়েছে তাদের বিদেশ দফতর। তাতে সংবিধান এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ মেনে দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অধিকার রক্ষায় মোদী সরকারকে সচেষ্ট হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে তারা। যদিও এই পরামর্শ কার্যত ভারতের উদ্দেশে কড়া বার্তা বলে মনে করছে কূটনৈতিক মহল। বৃহস্পতিবার বিদেশ দফতরের মুখপাত্র বলেন, ‘‘নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল ঘিরে কী কী ঘটছে, সে দিকে নজর রেখেছি আমরা। ধর্মীয় স্বাধীনতা এবং সকলের সমানাধিকারই আমাদের দুই গণতন্ত্রের মৌলিক নীতি। ভারতের কাছে মার্কিন সরকারের আর্জি, সংবিধান এবং গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের কথা মাথায় রেখে তারা যেন দেশের ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের অধিকার…
নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক বিলের প্রতিবাদে রাস্তায় নামলেন হাজার হাজার মানুষ। দোকান, গাড়ি, বাড়ি ভাঙচুর করে আগুন লাগাল জনতা। গত রাত থেকে আজ দিনভর উত্তেজনায় মৃত্যু হল পাঁচ জনের। সরকারি সূত্রে অবশ্য তিন জনের মৃত্যুর কথা জানিয়ে বলা হয়, তিনসুকিয়ায় আগুনে পুড়ে মারা গিয়েছেন নারায়ণ নামে এক প্রৌঢ়। আদতে বিহারের বাসিন্দা নারায়ণ হিজুগুড়ি এলাকায় বাঙালি মালিকানাধীন একটি হোটেলে কাজ করতেন। বিক্ষোভকারীরা হোটেলে আগুন লাগানোয় তাঁর মৃত্যু হয়। গুয়াহাটির লাচিতনগরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে দীপাঞ্জল দাস নামে সেনা ক্যান্টিনের কর্মী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গুয়াহাটিরই হাতিগাঁও শঙ্কর পথে পুলিশের গুলিতে এক জন মারা গিয়েছেন। তাঁর নাম জানা যায়নি। যদিও বেসরকারি সূত্রের দাবি, শঙ্কর…

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা