11192018সোম
মঙ্গলবার, 03 জুলাই 2018 07:50

বেলজিয়ামের সঙ্গে লড়াইয়ে হারল জাপান: কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাজিলের সামনে বেলজিয়াম

নিউজ ফ্ল্যাশ প্রতিবেদক যোগ করা সময়ের চার মিনিটও ততক্ষণে শেষের পথে। বেলজিয়াম গোলপোস্টের ৩৫ গজ দূরে একটি ফ্রি কিক পেয়েছে জাপান। অতিরিক্ত আধাঘণ্টা শুরুর আগে এটিই হয়তো শেষ সুযোগ। জোরালো শট নিলেন কেইসুক হোন্ডা। ডান দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে কোনোমতে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করলেন থিবাউট কুর্তোয়া। খুব দ্রুত কর্নার নেওয়ার পর এবার নিরাপদেই বল হাতে জমালেন বেলজিয়াম গোলরক্ষক। রেফারির শেষের বাঁশি বেজে বেজে যায়- এমন যখন অবস্থা, ঠিক তখনই নাটকীয়তা। কুর্তোয়ার হাত দিয়ে বাড়ানো বল ধরে মাঝমাঠ পেরোলেন কেভিন ডি ব্রুইন। ডানদিকে বাড়ালেন থমাস মিউনিয়েরের দিকে। মিউনিয়ের আবার নিচু ক্রস খেললেন বাঁ দিকে। খুব চতুরতার সঙ্গে বল এড়িয়ে গেলেন মার্কে থাকা রোমেলু লুকাকু। বাঁ পাশে ফাঁকায় থাকা নাসের চ্যাডলি বল জড়িয়ে দিলেন জালে। বেলজিয়াম ৩, জাপান ২! শেষ মুহূর্তের নাটকীয় এ ঘটনার মঞ্চায়ন সোমবার রাতের বেলজিয়াম-জাপান ম্যাচে। অথচ খেলাশেষে ২৫ মিনিট আগেও ২-০'তে এগিয়ে ছিল জাপানই। জমাট রক্ষণ আর মুহুর্মুহু আক্রমণে ভীতি ছড়িয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল হাতের কাছেই দেখছিল এশিয়ার দেশটি। কিন্তু তিন নম্বর র‌্যাংকিংয়ের বেলজিয়ামের কাছে শেষ পর্যন্ত হেরেই মাঠ ছাড়তে হয়েছে সূর্যোদয়ের দেশটিকে। ১৯৭০ বিশ্বকাপের ইংল্যান্ডের পর এই প্রথম কোনো দেশ দুই গোলে এগিয়ে গিয়েও বিদায় নিল নকআউট থেকে। তবে এশিয়ার একমাত্র দল হিসেবে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠা জাপান বিশ্ব ফুটবলকে বড় এক বার্তাই দিয়ে গেল রাশিয়া বিশ্বকাপে। জাপানকে কাঁদিয়ে শেষ আটে ওঠা বেলজিয়াম সেমির লক্ষ্যে ব্রাজিলের মুখোমুখি হবে শুক্রবার রাত ১২টায়। রোস্তব অ্যারেনার এ ম্যাচটিতে খেলা যা হয়েছে দ্বিতীয়ার্ধেই। ৪৮ মিনিটের মাথায় কাউন্টার অ্যাটাকে বল পেয়ে বেলজিয়ামের রক্ষণে ঢুকে যান হারাগুচি। জার্মান লীগে খেলা এই উইঙ্গারকে বাধা দেওয়ার জন্য ছিলেন জন ভারটংগেন। কিন্তু টটেনহামের এই ডিফেন্ডার কাট আউট করতে পারেননি। বল পায়ে আরেকটু এগিয়ে ডান দিক থেকে দূরের পোস্টে শট নেন হারাগুচি। কুর্তোয়ার নাগালের বাইরে দিয়ে বল ঢুকে যায় জালে। গোলের আনন্দে উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠা জাপানের জালে গোল হয়ে যাচ্ছিল পরের মিনিটেই। কিন্তু বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া হ্যাজার্ডের জোরালো শট পোস্টে লেগে ফিরে যায়। গোল তো শোধ হয়ইনি, তিন মিনিট পর উল্টো দ্বিতীয় গোল হজম করে ফেলে বেলজিয়াম। পঁচিশ গজে দূর থেকে জোরালো শটে বল জালে জড়ান তাকাশি ইনুই। অনেকটা আর্জেন্টিনা-ক্রোয়েশিয়া ম্যাচের লুকা মডরিচের গোলটিরই রেপ্লিকা ছিল এটি। জোড়া গোলে পিছিয়ে যেন তেতে ওঠে বেলজিয়াম। ৬৯ থেকে ৭৪- এ পাঁচ মিনিটের মধ্যেই শোধ করে ফেলে দুই গোল। এরমধ্যে প্রথম গোলটি আবার ভারটংগেনের, যার ভুলে হয়েছিল জাপানের প্রথম গোল। গোলপোস্টের একপাশে দাঁড়িয়ে ভারটংগেন যখন হেড নেন, তখন সম্ভবত তিনিও ভাবতে পারেননি দূরের কর্নার দিয়ে তার বল জালে ঢুকে যাবে। ৭৪ মিনিটের পরের গোলটিও হেডের। হ্যাজার্ডের ক্রস থেকে পেল্লাইনির মাপা হেড গোলরক্ষক ঝাঁপিয়েও নাগাল পাননি। ম্যানইউ মিডফিল্ডারের সমতা আনা গোলটিই বেলজিয়ামকে জয়ের রসদ দিয়ে ফেলে। তুলির শেষ আঁচড়টা টেনেছেন যেখানে চ্যাডলি। এর আগে খেলায় ফেবারিট হিসেবেই নেমেছিল বেলজিয়াম। কখনও বিশ্বকাপ না জিতলেও বিগত ক'বছর ফিফা র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ দলগুলোর মধ্যেই অবস্থান ইউরোপিয়ান দেশটির। লুকাকু, হ্যাজার্ড, ডি ব্রুইন, কোম্পানিদের নিয়ে গড়া দলটিকে বলা হয় বেলজিয়ামের 'গোল্ডেন জেনারেশন'। সোনালি প্রজন্মের তকমার সেই চাপ নিয়েই রাশিয়াতে খেলছে বেলজিয়াম। জাপানের সঙ্গে আগের পাঁচ দেখায় জয় মাত্র একটি হলেও শক্তি-সামর্থ্যে বেলজিয়ামকে কেউ পিছিয়ে রাখেননি। তার ওপর এ ম্যাচে সেরা খেলোয়াড়দের সবাইকে নিয়েই একাদশ সাজান রবার্তো মার্টিনেজ। 'জি' গ্রুপের শেষ ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বেঞ্চের খেলোয়াড় দিয়ে দল নামিয়েছিল বেলজিয়াম। সেই ম্যাচের একাদশ থেকে কেবল গোলরক্ষককে রেখে বাকি দশজনকেই বদলে ফেলা হয় গতকাল জাপানের বিপক্ষে। জাপানও অবশ্য কম পরিবর্তন করেনি। পোল্যান্ডের বিপক্ষে খেলা শেষ ম্যাচের একাদশে বদল আনে ছয়টি। দুই দলই নিজেদের সেরা একাদশটি নিয়ে নামলেও শুরুতে বেশি উজ্জীবিত দেখা গেছে জাপানকেই। শুরুর দিকে বেলজিয়ামের নজর ছিল কেবল কাউন্টার অ্যাটাকে। সেই সুযোগে বারবারই তাদের রক্ষণে আক্রমণ হানিয়েছেন শিনজি কাগাওয়া, তাকাশি উনুই এবং ইউইউ ওসাকারা। তবে অ্যাটাকিং থার্ডে গিয়ে গড়বড় করে ফেলায় কাজে লাগেনি কোনো আক্রমণই। জাপানের তুলনায় বেলজিয়াম আক্রমণে গেছে বেশি। কিন্তু ডি ব্রুইনের ধীরতা তাদের ভুগিয়েছে বেশি। আক্রমণস্থলে পর্যাপ্ত বল না পেয়ে ক্ষোভ দেখাতেও দেখা গেছে লুকাকুকে। তবে এরপরও যে সুযোগগুলো হ্যাজার্ড-লুকাকুরা পেয়েছেন, সেটিতে ফল তুলতে পারেননি। বিশেষ করে জাপানের রক্ষণে আটকে গেছেন বারবার। কখনোবা আবার বল উড়িয়েছেন বারের ওপর দিয়ে। তবে দ্বিতীয়ার্ধেই পাল্টে যায় চিত্রপট। যে পথ ধরে এখন কোয়ার্টারে ব্রাজিলের সঙ্গী বেলজিয়াম।
পড়া হয়েছে 77 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: মঙ্গলবার, 03 জুলাই 2018 07:56