05232019বৃহঃ
সোমবার, 11 মার্চ 2019 22:09

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ করার দাবি রওশনের

নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক সরকারি চাকরিতে প্রবেশের সর্বোচ্চ বয়সসীমা ৩৫ করার দাবি জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান সংসদ সদস্য (এমপি) রওশন এরশাদ। সোমবার সন্ধ্যায় সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ আহ্বান জানান। এর আগে জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে দিনের কার্যক্রম শুরু হয়। সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ করার দাবি প্রধানমন্ত্রী পূরণ করবেন-এমন প্রত্যাশা করে গত সংসদের বিরোধী দলের নেতা রওশন বলেন, চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ান। আশা করছি প্রধানমন্ত্রী এটা করবেন। প্রধানমন্ত্রী মমতাময়ী মা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মন মমতাময়ী মায়ের মন। একই সঙ্গে চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা ৩০ শতাংশ পুর্নবহালের দাবিও জানান তিনি। তরুণ ও যুব সমাজের অবক্ষয় ঠেকাতে রাত ১২টার পর ফেসবুক বন্ধ করারও আহ্বান জানান রওশন এরশাদ। বর্তমান সরকারের মন্ত্রিসভার প্রশংসা করে সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টির এই নেতা বলেন, মন্ত্রিসভায় চমক থাকবে, তবে এতবড় চমক থাকবে ভাবতে পারিনি। আমরা এই মন্ত্রিসভায় খুশি। এবারের মন্ত্রিসভা দেখে মনে হয়েছে দেশের উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একঝাঁক পায়রা আকাশে উড়িয়ে দিয়েছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর ছেলে এবং তার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের প্রশংসা করে রওশন বলেন, তার (জয়) জন্য দোয়া করি। সে ডিজিটাল দেশ গঠনে ভূমিকা রাখছে। প্রত্যাশা করি ভবিষ্যতে সে দেশের নেতৃত্ব দিবে। সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে জানিয়ে রওশন বলেন, আশা করি অচিরেই তিনি সংসদে যোগ দিতে পারবেন। সবাই ওনার জন্য দোয়া করবেন। দশম জাতীয় সংসদেও জাতীয় পার্টির বিরোধী দল থাকার কথা উল্লেখ করে দলটির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান বলেন, গত দশম সংসদে যেভাবে আমরা ভূমিকা রেখেছি- আমি মনে করি স্বাধীনতার পরে এভাবে এত সুন্দরভাবে কোনো সংসদ চলেনি। আপনারা দেখেছেন- অতীতে যখনই কোনো সরকার উন্নয়ন পদক্ষেপ নিত বিরোধী দল বাধা দিত। দশম পার্লামেন্টে আমরা সরকারের প্রতিটি উন্নয়ন কাজে সহযোগিতা করেছি। উন্নয়ন কাজে বিরোধী দল জাতীয় পার্টি এই সংসদেও সরকারকে সহযোগিতা করবে বলে জানান তিনি। ময়মনসিংহ-৪ আসনের এই সংসদ সদস্য বলেন, ২০৪১ সালে যাতে বাংলাদেশ উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হতে পারে- সেভাবে আমরা সরকারকে সহযোগিতা করবো। যাতে দেশ সত্যিকারে উন্নত ও সমৃদ্ধ হয়।
পড়া হয়েছে 38 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: সোমবার, 11 মার্চ 2019 22:16