07232018সোম
মঙ্গলবার, 10 জুলাই 2018 08:08

সৌদিতে বাংলাদেশি নারী কর্মীরা ভালো আছেন: প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী

নিউজ ফ্ল্যাশ প্রতিবেদক বর্তমানে সৌদি আরবে বাংলাদেশি নারী কর্মীরা ভালো আছেন বলে দাবি করেছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি। দেশটিতে গৃহকর্মী নির্যাতন বন্ধে সরকারের নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, সরকারের পদক্ষেপের ফলে অনেক অত্যাচার-নির্যাতন কমেছে। নারী কর্মীরা অনেক ভালো আছেন। যারা ফেরত এসেছেন তারা আবারও যেতে চান। সোমবার জাতীয় সংসদে ৭১ বিধিতে আনা নোটিশের জবাব দিতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য মাহজাবীন মোরশেদ সৌদি আরবে নারী গৃহকর্মীদের নির্যাতনের বিষয়ে ৭১ বিধির এই নোটিশটি উত্থাপন করেন। এর আগে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়। মাহজাবীন মোরশেদ বলেন, দেশে অনেক অসহায় দরিদ্র পরিবার রয়েছে। তারা তাদের পরিবারের আর্থিক অনটন দূর করতে বিদেশে পাড়ি জমায়। অধিক বেতনের কথা বলে এক শ্রেণির অসাধু দালাল তাদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়ে বিদেশ পাঠাচ্ছে। কিন্তু বিদেশে গিয়ে তারা আশানুরূপ কাজ পাচ্ছে না, বেতন পাচ্ছে না দিনের পর দিন এবং নানাভাবে নির্যাতিত হচ্ছে। নির্যাতনের মাত্রা এত বেশি হচ্ছে যে, তারা একসময় মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলছে। প্রতি মাসে এ ধরনের দুই শতাধিক নির্যাতিত নারী সৌদি আরব থেকে ফিরে আসছে। জবাবে প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী বলেন, সৌদি আরবে দুই লাখের বেশি বাংলাদেশি নারী গৃহকর্মী হিসেবে কর্মরত আছে। সৌদি আরবে নিগৃহীত নারী কর্মীদের মূল সমস্যা আরবি ভাষা বোঝা ও বলার অক্ষমতা। নারী কর্মীদের কেউ কেউ সৌদি আরবের পরিবেশ, খাদ্যাভ্যাস, ভাষা ইত্যাদি বিষয়ের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে না পেরে পালিয়ে সেফ হোমে আশ্রয় নেয়। এ ছাড়া রমজান মাসে অত্যধিক চাপে পালিয়ে আসে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণে সৌদি সরকারের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের যোগাযোগ অব্যাহত রয়েছে। বিদেশে গিয়ে হয়রানি ও নির্যাতন রোধে সরকারের পদক্ষেপ তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, দালাল ও মধ্যস্বত্বভোগীদের দৌরাত্ম্য রোধে জনসচেতনতামূলক নানাবিধ কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলে নিরাপদ অভিবাসন সম্পর্কে বুকলেট, লিফলেট, পোস্টার ইত্যাদি বিতরণ, টিভি চ্যানেলে বিজ্ঞাপনসহ মেলার আয়োজন করা হচ্ছে। সাম্প্রতিক অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে নারী কর্মীদের গৃহকর্মী পেশায় দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য বয়স ৩৫-৩৮ বছর নির্ধারণ, কমপক্ষে তৃতীয় শ্রেণি পাস, গৃহকর্মী হিসেবে যাওয়ার আগে সে দেশের ভাষা-কৃষ্টিসহ গৃহকর্মের বিষয়সমূহ প্রশিক্ষণে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। অভিযোগ দ্রুত গ্রহণ ও সমাধানে সেল গঠন করা হয়েছে। প্রবাসবান্ধব কলসেন্টার চালু করা হয়েছে। কোনো রিক্রুটিং এজেন্সির বিরুদ্ধে অবৈধভাবে কোনো নারী কর্মীকে বিদেশে পাঠানোর অভিযোগ পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। মন্ত্রী বলেন, 'বিদেশ থেকে যারা ফিরে আসে, তারা কী কারণে আসে এবং কোথায় নির্যাতিত হয়েছে তার খবরাখবর আমরা রাখছি। যাদের দ্বারা নির্যাতিত হয়েছে তাদের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করতে না পারলেও আমাদের মিশনের মাধ্যমে যোগাযোগ করি। দরকার হলে সে দেশের মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়।'
পড়া হয়েছে 8 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: মঙ্গলবার, 10 জুলাই 2018 08:13

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা