09172019মঙ্গল
বুধবার, 07 জুন 2017 08:50

জাদুঘরে চরম ঘনিষ্ঠ মুহূর্তে ধরা পড়লেন যুগল, পাঠানো হল থানায়। তারপর?

প্রতীকী ছবি প্রতীকী ছবি
সিসিটিভিতে এমন দৃশ্য দেখে প্রথমে বিশ্বাস করতে পারছিলেন না। পরে হতভম্ব হয়ে গেলেন কলকাতা জাদুঘরের নিরাপত্তারক্ষীরা। মঙ্গলবার বিকেলে জাদুঘর ঘুরে দেখছিলেন অনেকেই। ঘড়িতে তখন সওয়া ৪টে। সিসিটিভি ফুটেজে হঠাৎ দেখা গেল এক যুগলের চরম ঘনিষ্ঠতার দৃশ্য! পুলিশ সূত্রের খবর, জাদুঘরের ‘কালচারাল অ্যানথ্রোপলজি’ বিভাগে কাজ চলছে। সাধারণের প্রবেশ নিষেধ সেখানে। কিন্তু এদিন সেই বিভাগেরই একটি অংশে ওই যুগলকে দেখা যায়। নিরাপত্তারক্ষীরা গিয়ে তাঁদের বাইরে বেরিয়ে আসতে বলেন। ফোন করে ঘটনার কথা জানানো হয় নিউ মার্কেট থানায়। পরে পুলিশ তাঁদের থানায় নিয়ে যায়। জাদুঘরের আধিকারিকদের একাংশ জানাচ্ছেন, এধরনের ‘ছোটখাটো’ ঘটনা ঘটেছে এর আগেও। কিন্তু এদিনের ঘটনা যাবতীয় ‘মাত্রা’ ছাড়িয়ে গিয়েছে। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনায় কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। জাদুঘরের মুখপাত্র সায়ন ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘অনেকেই ভুলে যান যে, জাদুঘরের মতো জায়গায় সবসময় সিসিটিভি ক্যামেরা থাকে। তাই কেউ যা ইচ্ছা তাই করে যদি ভাবেন, আমাদের চোখ এড়াতে পারবেন, সেটা সম্ভব নয়। এটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। দর্শকদের অধিকাংশই পরিবার নিয়ে আসেন। এরকম ঘটনা কাম্য নয়।’’ পুলিশ সূত্রের খবর, এদিন বিকেলেই যুগলের পরিবারকে থানায় ডেকে পাঠানো হয়। তাদের কাছ থেকে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই যুগল খিদিরপুরের বাসিন্দা। তাঁদের বিয়ে ঠিক হয়ে গিয়েছে। জাদুঘর কর্তৃপক্ষের তরফে রাত পর্যন্ত কোনও অভিযোগ দায়ের না হওয়ায় পুলিশ তাঁদের ছেড়ে দেয়। এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, ‘‘কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। তবে প্রয়োজনে ওই যুগলকে ফের জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে।’’ তবে এ ঘটনার কথা জানাজানি হওয়ার পর এক রসিকের মন্তব্য, ‘‘এক বিচারপতি বলেছেন বটে যে ময়ূর ব্রহ্মচারী! কিন্তু মানুষ তো তা নয়! তাই বোধহয়...।’’
পড়া হয়েছে 454 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: বুধবার, 07 জুন 2017 09:01