09162019সোম
শিরোনাম:
শনিবার, 14 নভেম্বর 2015 22:23

নয়াদিল্লীতে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা শুরু

< > ডেস্ক ভারতের প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখার্জি আজ নয়াদিল্লীতে ৩৫তম ইন্ডিয়া ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড ফেয়ার (আইআইটিএফ) উদ্বোধন করেছেন। এ বছর মেলার ফোকাস কান্ট্রি করা হয়েছে বাংলাদেশকে। আর আফগানিস্তানকে করা হয়েছে পার্টনার কান্ট্রি। গোয়া ও ঝাড়খন্ডকে পার্টনার স্টেট এবং মধ্যপ্রদেশকে ফোকাস স্টেট করা হয়েছে। ভারত ও বহির্বিশ্বের সাত সহ¯্রাধিক প্রতিষ্ঠান ১৪ দিনব্যাপী এ মেলায় অংশ নিচ্ছে। মেলা উদ্বোনকালে প্রণব মুখার্জি বলেন, আইআইটিএফ-২০১৫ বৈশ্বিক ভ্রাতৃত্বের একটি আদর্শ মঞ্চ। শান্তি ও সমৃদ্ধি বাড়াতে বাণিজ্য সম্পর্কে একটি অভিন্ন স্বার্থ রয়েছে। তিনি বলেন, সার্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও সামাজিক অগ্রগতি অর্জনের জন্য ভারতে প্রয়াস অনেক উন্নয়নশীর দেশকে সামনে এগুবার পথ দেখিয়েছে। তিনি বলেন, এটি ভারতে বিরাট সুযোগের সময়। ভারতের প্রেসিডেন্ট বলেন, ভারত সরকারের কিছু সাম্প্রতিক উদ্যোগ ইতোমধ্যেই ফল দিতে শুরু করেছে এবং দেশের প্রধান খাতগুলোতে ইতিবাচক প্রভাব সৃষ্টি করেছে। তিনি দর্শনার্থীদের জন্য সুযোগ-সুবিধা উন্নত করতে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য মেলা আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান। প্রণব মুখার্জি বলেন, বিশেষ করে সার্ক অঞ্চল থেকে অনেক কোম্পানি মেলায় অংশ নেয়ায় তিনি আনন্দিত। তিনি বলেন, আমাদের ‘প্রতিবেশী প্রথম’ নীতির সঙ্গে সঙ্গতি রেখে আমাদের দক্ষিণ এশীয় প্রতিবেশীরাই আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার। প্রণব মুখার্জি আফগানিস্তানকে মেলার পার্টনার কান্ট্রি ও বাংলাদেশকে ফোকাস কান্ট্রি করাকে সুন্দর উদ্যোগ হিসেবে প্রশংসা করেন। অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে ভারতে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলী বলেন, বাংলাদেশ ও ভারত অভিন্ন ভৌগোলিক অবস্থান ও ইতিহাসের ভিত্তিতে বন্ধুত্ব, সহযোগিতার নিবিড় বন্ধনে আবদ্ধ। তিনি ১৯৭১ বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ভারত সরকার ও জনগণের অবিচল সমর্থন ও অমূল্য অবদানের কথা উল্লেখ করে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর সরকার দু’দেশের মধ্যে ঘনিষ্ঠ দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বজায় রাখার জন্য সব ধরনের প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ-ভারত বাণিজ্য সম্পর্ক অব্যাহতভাবে বেড়ে চলছে এবং দু’দেশের মধ্যে পণ্য ও সেবা বিনিময় ইতোমধ্যে ছয়শ’ কোটি ডলার অতিক্রম করেছে < >
পড়া হয়েছে 340 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শনিবার, 14 নভেম্বর 2015 22:36