11272021শনি
শুক্রবার, 12 মার্চ 2021 11:53

মুখ্যমন্ত্রীকে দেখতে হাসপাতালে গেলেন হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি

নিউজফ্ল্যাশ ডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখতে এসএসকেএম হাসপাতালে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি। শুক্রবার সকালে মুখ্যমন্ত্রীকে দেখতে আসেন প্রধান বিচারপতি টি ভি রাধাকৃষ্ণান। এসএসকেএমের উডবার্ন ব্লকে ভর্তি মুখ্যমন্ত্রী। চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন তিনি। বাঙ্গুর ইন্সটিটিউট অফ নিউরো সায়েন্সে স্ক্যানের পর তাঁকে ফের এসএসকেএমে আনা হয়। সিটি স্ক্যান করা হবে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তাঁকে বাঙ্গুর ইন্সটিটিউট অফ নিউরো সায়েন্স-এ নিয়ে যাওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর পা ফুলে রয়েছে, হাতেও ব্যথা আছে বলে জানা গিয়েছে। হাসপাতালের বেডে শুয়েই ভিডিও বার্তা দিলেন আহত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রয়োজন হলে হুইল চেয়ারে করে ঘুরতে পারেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি জানালেন, “কাল খুব জোরে লেগেছিল, হাত, পায়ে চোট আছে লিগামেন্টে ইনজুরি রয়েছে। মাথা ও বুকেও আছে ব্যথা রয়েছে। গাড়ির বনেটে দাঁড়িয়ে নমস্কার করছিলেন। সেসময় জোরে চাপ আসে। আশা করছি, দু-তিনদিনের মধ্যে কর্মসূচিতে ফিরতে পারব। হয়তো কটা দিন হুইল চেয়ার ব্যবহার করতে হবে, আপনাদের সকলের সহযোগিতা চাই।” একই সঙ্গে সকলকে সংযত ও শান্ত থাকতে আবেদন করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এসএসকেএম হাসপাতালের উডবার্ন ওয়ার্ডে ভর্তি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার রাতেই তাঁর প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়েছে। পরীক্ষার রিপোর্টে দেখা গিয়েছে, পেশিতে ভালো রকম চোট পেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তবে হাড় ভাঙেনি। আপাতত হাসপাতালে তাঁকে কড়া পর্যবেক্ষণে রেখেছেন তাঁর চিকিৎসায় তৈরি মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্যরা। এসএসকেএম হাসপাতালে উডবার্ন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আপাতত ৪৮ ঘণ্টা তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখবেন চিকিৎসকরা। তাঁর চিকিৎসায় তৈরি ৮ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্যরা তাঁর দেখভাল করছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাঁ পায়ে চোট লেগেছে। শরীরের একাধিক অংশেও আঘাত লাগে। তবে হাড় ভাঙেনি। পেশির চোটেই কাবু মুখ্যমন্ত্রী। চিকিৎসকরা তাণর প্রয়োজনীয় সবরকম স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছেন। ব্যথা কমানোর ও।ুধ তাঁকে দেওয়া হয়েছে। আপাতত দিন দুয়েক তাঁর হাসপাতালেই থাকার কথা। বুধবার সন্ধেয় তিনি যখন নন্দীগ্রামের বিরুলিয়ার কাছে একটি মন্দির থেকে বের হচ্ছিলেন ঠিক সেই সময় থাকে কেউ বা কারা তাঁকে ধাক্কা মারে বলে অভিযোগ। পরিকল্পনা করে তাঁকে ধাক্কা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। ধাক্কা লাগার পরেই তিনি মুখ থুবড়ে মাটিতে পড়ে যান। তাঁর সঙ্গে থাকা নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁকে গাড়িতে তোলেন। সঙ্গে-সঙ্গে কলকাতার উদ্দেশ্যে রওনা হন মমতা। গাড়িতে বসে বসে রীতিমতো কাতরাচ্ছিলেন তৃণমূলনেত্রী। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “৪-৫ জন চক্রান্ত করে ধাক্কা মেরেছে। জেনে শুনে ষড়যন্ত্র করে আমাকে আক্রান্ত করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানাবো।” বুধবার সন্ধেতেই নন্দীগ্রাম থেকে কলকাতায় ফেরার সিদ্ধান্ত নেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রীকে গ্রিন করিডর করে SSKM-এ আনা হয়। SSKM-এর উডবার্ন ওয়ার্ডের ভিভিআইপি কেবিনে রাখা হয় মুখ্যমন্ত্রীকে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাঁ পা, কাঁধ, কোমর, বুক এবং মাথায় আঘাত লেগেছিল। দ্রুত তাঁর ইসিজি, এক্স-রে করা হয়। রিপোর্টে জানা যায়, বাঁ পায়ে চোট পেলেও হাড় ভাঙেনি। বাঁ পা ছাড়াও শরীরের বেশ কয়েকটি জায়গায় চোট পেয়েছেন তিনি। এরপরেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এমআরআই করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। বাঙুর ইনস্টিটিউট অফ নিউরোসায়েন্সেসে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। সেখানে তৃণমূল সুপ্রিমোর এমআরআই করা হয়। এসএসকেএম-এ মুখ্যমন্ত্রী চিকিৎসায় মেডিক্যাল বোর্ড তৈরি করা হয়েছে। সেই বোর্ডের সদস্যরাই দেখভাল করছেন মুখ্যমন্ত্রীকে। কোলকাতা২৪।
পড়া হয়েছে 118 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 12 মার্চ 2021 12:30

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা