08232019শুক্র
শুক্রবার, 08 ডিসেম্বর 2017 11:24

শীতের স্কিন কেয়ার, ত্বক বুঝে ফেসিয়াল করুন

শীত এসে গিয়েছে। ইতিমধ্যেই ত্বক শুকনো হতে শুরু করেছে। বেড়েছে র‍্যাশের সমস্যা। এ ছাড়াও নিত্যদিনকার টেনসন, দূষণ, ধুলো, বালি ইত্যাদি তো রয়েছেই। এ সবের হাত থেকে ত্বককে রক্ষা করতে শীতে একটু বেশি যত্ন নিতে হয়। একটু নিয়ম করে ক্লিনজিং, টোনিং, ময়েশ্চারাইজিং এর সঙ্গে স্ক্রাবিং করতে পারলে শীতে ত্বক নিয়ে নো চিন্তা। তার উপর শীত মানেই পার্টি, বিয়ে বাড়ি। মুখের ফ্রেশনেসও তো বজায় রাখা জরুরি। নিয়ম করে একটু যত্ন নিলেই শীতে ত্বকের জেল্লা বজায় থাকবে। আর কে না জানে, পরিষ্কার ত্বকই সৌন্দর্যের মূল কথা। শীতে ত্বকের উপরিভাগ কালো হয়। এটা হয়ে থাকে ত্বকের ওপর জমে থাকা মরা কোষের জন্য। এই কালোভাব দূর করতেই স্ক্রাবিং করা প্রয়োজন। সপ্তাহে অন্তত একদিন স্ক্রাবিং করুন। শীতে দু’সপ্তাহ অন্তর ফেসিয়াল করা জরুরি। কারণ ক্রিম, ময়েশ্চরাইজার ব্যবহারের কারণে বাইরে যখন বের হতে হয় তখন তা রোদে গলে রোমকূপের ভিতরে চলে যায়। রোমকূপের মুখ বন্ধ হয়ে যায়, ফলে খুব সহজে ত্বক দাগ বসে যায়। আর এই দাগ যাতে না বসে সে জন্য স্টিম নিতে পারলে ভাল। এরপর ত্বক ঠান্ডা করে নিতে হবে। আর বাইরে থেকে এসে ভাল কোনো ব্র্যান্ডের ফেসওয়াশ দিয়ে অবশ্যই মুখ ধুয়ে নিতে হবে। এ ছাড়াও প্রতিদিন পরিমাণ মত জল, মরশুমি ফল এবং সবুজ শাকসবজি খেতে হবে। ত্বক অনুযায়ী ফেসিয়াল করুন স্কিন সেন্সেটিভ হলে জেল বেস ফেসিয়াল করার চেষ্টা করুন। এতে স্কিনের তৈলাক্ত ভাব নিয়ন্ত্রণে থাকবে এবং হাইড্রেশন লেভেলও ঠিক থাকবে। নর্মাল স্কিনের ক্ষেত্রে যে কোনও নারিশিং ফেসিয়াল করুন। অতিরিক্ত টক্সিন যেমন বের হয়ে যায় তেমনই ক্রিম দিয়ে ম্যাসাজের ফলে চামড়া কুঁচকে যাওয়ার ভয় থাকে না। বিশেষত শীতের জন্য এই ফেসিয়াল খুব ভাল। ড্রাই স্কিন হলে চকোলেট ফেসিয়াল করতে পারেন। সব ধরনের স্কিনেই ফ্রুট ফেসিয়াল করা যেতে পারে। পার্লারে যাওয়ার সময় না থাকলে বাড়িতেও বানিয়ে নিতে পারবেন বেশকিছু ফেসিয়াল প্যাক। ড্রাই স্কিন হলে একটা পাকা কলা চটকে নিয়ে তার সঙ্গে ২ চামচ মিল্ক পাউডার, ১ চামচ টক দই আর ১ চামচ মধু মিশিয়ে লাগান। ১৫ থেকে ২০ মিনিট রাখুন। সপ্তাহে ২ থেকে ৩ দিন করুন। স্কিনে পিগমেন্ট থাকলে পাকা পেঁপে,মধু, ডিমের সাদা অংশ এক সঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগালে উপকার পাবেন। অয়েলি হলে ১ চামচ কোকো পাউডার, ১ চামচ মধু, ১ চামচ বেসন, ২ চামচ কাঁচা দুধ এক সঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগান। ১৫ মিনিট রেখে ঈষদুষ্ণ গরম জলে ধুয়ে ফেলুন। ভাল উপকার পাবেন। প্রয়োজনীয় কিছু টিপ্‌স মুলতানি মাটি, লবঙ্গ, তুলসিপাতা দিয়ে প্যাক বানিয়ে লাগালে ব্রণর সমস্যা কমে। তুলসি, নিম জলে ফুটিয়ে স্নান করলে র‍্যাশ কমে যায়। যে কোন ধরনের ত্বকেই চালের গুঁড়ো, টকদই, মধু দিয়ে স্ক্রাবিং চলতে পারে। কমলা লেবুর রস ভাল টোনিং-এর কাজ করে। ছানার জল, মুলতানি মাটি আর মধু মিশিয়ে প্যাক বানিয়ে মুখ সহ শরীরের অন্যান্য অঙ্গে লাগাতে পারেন। ফেয়ারনেস আসবে। গ্লিসারিন আর গোলাপ জল মেখে রোদে বেরোবেন না। এতে ত্বক কালো হয়ে যায়।
পড়া হয়েছে 216 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 08 ডিসেম্বর 2017 11:39