08232019শুক্র
শুক্রবার, 06 মার্চ 2015 09:08

যুবশক্তির উদ্যমে বাধা দিচ্ছেন রাজনীতিবিদরা---আনোয়ার হোসেন মঞ্জু


নিজস্ব প্রতিবেদক

পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু বলেছেন, যুবশক্তির উদ্যমে দেশের রাজনীতিবিদরা বাধা দিচ্ছেন। কিন্তু এ যুবশক্তিই রাজনীতিবিদদের পথ দেখাবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের যে পরিবর্তন তাতে তরুণ সমাজের ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে। রাজনীতিবিদদের ওপর নির্ভর না করে তারা দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। গতকাল রাজধানীর একটি হোটেলে জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক তথ্য সম্বলিত ওয়েব পোর্টালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আনোয়ার হোসেন মঞ্জু এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, গোটা বিশ্বের সাথে বাংলাদেশের প্রযুক্তি খাত এগিয়ে যাচ্ছে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী এবং তার পুত্র এ কাজে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন। প্রযুক্তির মাধ্যমে মানুষের অনেক কাজ সহজ হয়ে যাচ্ছে। বিমানবন্দরে চেক-ইন থেকে শুরু করে ব্যাংকিংসহ প্রায় সব খাতেই এখন প্রযুক্তির ছোঁয়া লেগেছে। কোন কাজে মানুষের সহায়তা নিলে তার জন্য অর্থ খরচ করতে হয়। তিনি বলেন, সবকিছু কম্পিউটারাইজড হওয়াতে সময় ও অর্থ দুটোই বেঁচে যাচ্ছে। এরকম একটি পৃথিবীর জন্য আমি নিজেই গর্ববোধ করি। তিনি বলেন, আজকে সচিবালয়ে এত লোকের ভিড় দেখা যাচ্ছে। একসময় সেটা আর দেখা যাবে না। কারণ সে সময় জনগণ অনলাইনে তাদের প্রায় সব সমস্যা নিয়ে মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করতে পারবে।

তিনি বলেন, উন্নত দেশের অনেক লোক এখনো মনে করে আমরা গরিব। তারা মনে করে আমাদের দেশে এখনো খাদ্য সংকট রয়েছে। কিন্তু যখন শুনে যে, আমরা এখন খাদ্য রপ্তানি করছি তাতে তারা অবাক হয়। পরিবেশ মন্ত্রী বলেন, ১৯৭০ সালের বাংলাদেশ আর আজকের বাংলাদেশের মধ্যে অনেক তফাত্। জলবায়ু পরিবর্তনের তথ্য নিয়ে যে ওয়েব পোর্টালের উদ্বোধন করা হচ্ছে তা দেখে আমি মোটেই বিচলিত হইনি। বরং বাংলাদেশের অনেক কিছুতে উন্নতি দেখে বিশ্বের উন্নত দেশ অবাক হয়। কোন কোন ক্ষেত্রে আমরা চীন এবং ভারত থেকে এগিয়ে আছি। আমাদের উন্নয়ন অনেকটা ভারসাম্যপূর্ণ।

তরুণদের প্রশংসা করে তিনি বলেন, আমাদের যুবশক্তি দেশের উন্নয়নে কাজ করছে। রাজনীতিবিদদের ওপর নির্ভর না করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। রাজনীতির মতাদর্শ ভিন্ন হলেও দেশের কাজ করছে তারা। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ বাংলাদেশ থেকে বিদেশে যাচ্ছে। সেখানে তারা চাকরি করছে।

বর্তমান বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার যে স্বপ্ন সেটার বাস্তবায়নে এ মন্ত্রণালয়ও কাজ করছে। বাংলাদেশের উন্নয়ন সহযোগী হবার জন্য এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) প্রশংসা করে তিনি বলেন, দীর্ঘসময় ধরে বাংলাদেশের উন্নয়নে সহায়তা করে যাচ্ছে এডিবি। বঙ্গবন্ধু সেতু নির্মাণের জন্য এডিবিই প্রথম সম্মতিসূচক পত্র দিয়েছিলো। এর আগে পরিবেশ ও বন মন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত ওয়েব পোর্টালের উদ্বোধন করেন।

পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. কামালউদ্দিন আহমেদ বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কিত ওয়েব পোর্টাল শুধু দেশের মানুষের নয়, দেশের বাইরেও যারা গবেষণা করেন তাদের কাজে লাগবে। জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে কারো কোন মতামত থাকলেও তারা তা এই পোর্টালের ব্লগে দিতে পারবেন। এর ফলে সরকারের সিদ্ধান্ত গ্রহণেও ইতিবাচক ভূমিকা থাকবে।

এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের বাংলাদেশের পরিচালক কাজুহিকো হিগুচি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের তথ্য আদান প্রদানে এই ওয়েব পোর্টাল একটি মাইলফলক। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা এ থেকে যথেষ্ট উপকৃত হবেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এডিবি কর্মকর্তা রণজিত্ চন্দ্র সরকার ও আরিফ এম ফয়সাল।

পড়া হয়েছে 803 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 06 মার্চ 2015 09:15

ফেসবুক-এ আমরা