06032020বুধ
শুক্রবার, 15 মে 2020 11:37

একাধিকবার গর্ভপাত হয়েছিল, সন্তান জন্ম দেওয়ার অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেন শিল্পা

মুম্বই: ২০০৯ সালে রাজ কুন্দ্রার সঙ্গে বিয়ে করেন অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি। ২০১২ সালে এরপর পুত্র সন্তানের জন্ম দেন তিনি। ভিভান হওয়া সত্বেও কেন আবার সারোগেসির মাধ্যমে শিল্পা মা হলেন তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন ওঠে। এবছর ফেব্রুয়ারিতে সারোগেসির মাধ্যমে কন্যা সন্তানের জন্মদান শিল্পা। কিন্তু কেন সারোগেসি? সেই বিষয়ে এক সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের কাছে সাক্ষাৎকারে মুখ খুললেন শিল্পা শেট্টি। শিল্পা জানিয়েছেন জীবনের জন্মের পর পরিবারে আরও একজন সদস্যকে তিনি সবসময় চাইতেন। কারণ ভিভান একা বেড়ে উঠুক এটা কখনোই চাননি তিনি। আর তাই আরও এক সন্তানের জন্ম দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন শিল্পা ও রাজ। কিন্তু সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করতে বারবার বাধা এসছে দম্পতির জীবনে। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার একাধিকবার গর্ভপাত হয়ে যায় শিল্পার। অভিনেত্রী নিজেই জানিয়েছেন এ কথা। তাই এরপরে শিশু দত্তক নেওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন রাজ ও শিল্পা। কিন্তু সেই পরিকল্পনাতেও আইনি বাধা আসতে থাকে। অবশেষে তৃতীয় পথটি বেছে নেন তারা। শিল্পা ও রাজ দুজনেই সিদ্ধান্ত নেন তারা সারোগেসির মাধ্যমে সন্তানের জন্ম দেবেন। ২০২০-র ফেব্রুয়ারিতে সেই কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। প্রসঙ্গত একটি সাক্ষাৎকারে শিল্পা আরও একটি অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন। বলিউডের ফিট অভিনেত্রী হিসেবে তিনি খুবই জনপ্রিয়। তার ছিপছিপে ফ্লেক্সিবল চেহারার ভক্ত অনেকেই। কিন্তু একসময় তাকেও বডি শেমিং এর শিকার হতে হয়েছিল। শিল্পা বলছেন, “অন্তঃসত্ত্বা থাকাকালীন ৩২ কেজি ওজন বেড়ে গিয়েছিল। আমি ভেবেছিলাম বড়জোর ১৫ কেজি ওজন আমার বাড়বে। কিন্তু তার দ্বিগুণ ওজন আমার বেড়ে গিয়েছিল। আর ভিভানকে জন্ম দেওয়ার পর আরো দু কেজি ওজন বেড়ে যায়। আমি জানিনা কিভাবে এরকম হয়েছিল। তবে একটা ঘটনার কথা মনে আছে।” এরপরই শিল্পা সেই ঘটনা শেয়ার করে নেন। তিনি বলেন, “ভিভান হওয়ার পর এই প্রথমবার রাজেশ সঙ্গে ডিনারে গিয়েছিলাম। সেখানে একদল মহিলা বসে ছিলেন এবং আমাকে নিয়ে আলোচনা করছিলেন। আমি শুনতে পেয়েছিলাম তারা বলছেন, ‘আরে ওদের শিল্পা শেট্টি না? এখনো এত ওজন রয়েছে’। সেটা শুনে খারাপ লেগেছিল।” তবে শিল্পা আর ওজন কমাতে এরপরে আর বেশিদিন সময় লাগেনি। নিজের শরীরচর্চা এবং নিয়মমাফিক জীবন যাপনের দ্বারা আবার সেই পুরনো চেহারায় ফিরে গিয়েছেন শিল্পা শেট্টি। কোলকাতা২৪।
পড়া হয়েছে 22 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 15 মে 2020 11:43