10192019শনি
শুক্রবার, 06 অক্টোবার 2017 13:40

লোকাল ট্রেনে কুৎসিত কাজ দেখেলন বিদ্যা বালন

বিদ্যা বালন। ছবি: ফোটোকর্প বিদ্যা বালন। ছবি: ফোটোকর্প
প্রকাশ্যে যে কত অপ্রত্যক্ষ অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সামনে পড়তে হয় মেয়েদের, সেই বিষয়েই বিশদ জানালেন অভিনেত্রী বিদ্য বালন। মেয়েদের যে কত সইতে হয়! পুরুষতান্ত্রিক সমাজে প্রত্যক্ষ নারী নির্যাতন যেখানে নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার, সেখানে প্রকাশ্যে যে কত অপ্রত্যক্ষ অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সামনে পড়তে হয় মেয়েদের, সেই বিষয়েই বিশদ জানালেন অভিনেত্রী বিদ্য বালন। সম্প্রতি নেহা ধুপিয়ার টেলিভিশন শো ‘নো ফিলটার নেহা সেশন ২’-এ অতিথি হয়ে এসেছিলেন বিদ্যা। সেখানে এই অস্বস্তির বিষয়ে খোলাখুলি জানালেন তিনি। এই প্রসঙ্গে তিনি বললেন তাঁরই জীবনের একটি ঘটনার কথা। কলেজ থেকে ফেরার সময়ে একদিন এক গোলমেলে লোক তাঁদের কামরায় ওঠে। লেডিজ কামরায় এক পুরুষের প্রবেশে হাঁ হাঁ করে ওঠেন যাত্রিণীরা। কিন্তু সেই লোকটি কোনও কথায় কান না দিয়ে কামরাতেই থেকে যায়। এমন ভাব করতে থাকে যে, সে এই সব ওজর-আপত্তি শুনতেই পায়নি। সে অবিচল দাঁড়িয়ে থাকে কামরার দরজায়। এমন অবস্থাতেই লোকটি প্যান্টের জিপ খুলে ফেলে। এবং সর্বসমক্ষে স্বমেহন শুরু করে দেয়। বিদ্যার হাতে একটা ফাইল ছিল। তাই দিয়ে তিনি লোকটিকে আঘাত করতে শুরু করেন এবং ট্রেন থেকে ঠেলে বের করে দিতে চান। এমন সময়ে ট্রেন একটা স্টেশনে প্রবেশ করে। লোকটি লাফিয়ে নেমে পালিয়ে যায়। মহিলাদের সমক্ষে পুরুষের এমন আচরণের নজির অবশ্য সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কয়েক বার দেখা গিয়েছে। দিল্লিতে এক বিদেশিনীর সামনে এক ট্যাক্সি চালক আত্মরতি করতে গিয়ে ধরা পড়ে। আবার, এক পুলিশ কনস্টেবল দিল্লিতেই তার মহিলা সহকর্মীদের সামনে স্বমেহন করে বিতর্কের সৃষ্টি করে। এমনকী, ইন্ডিগো-র এক ফ্লাইটে এক যাত্রী সর্বসমক্ষে একই কাণ্ড করে ধরা পড়েন। এবেলা।
পড়া হয়েছে 288 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 06 অক্টোবার 2017 13:51