10242019বৃহঃ
শিরোনাম:
রবিবার, 22 মে 2016 09:58

এক মাস পর ইতিবাচক ধারায় সপ্তাহ শুরু

< > নিউজফ্ল্যাশ প্রতিবেদক চার সপ্তাহ পর গতকাল রোববার দেশের দুই শেয়ারবাজারে সপ্তাহের লেনদেন শুরু হয়েছে ঊর্ধ্বমুখী ধারায়। এর আগে গত এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারদর বেড়েছিল। এতে বাজার সূচকও ছিল ঊর্ধ্বমুখী। এর আগে টানা সাত সপ্তাহ লেনদেনের প্রথম দিনটি শুরু হয়েছিল বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারদর বা সূচকের পতনের মধ্য দিয়ে। গতকাল প্রধান শেয়ারবাজার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৩১২ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে ১৪৬টির দর বেড়েছে, কমেছে ১১৬টির ও অপরিবর্তিত থেকেছে ৫০টির দর। এতে ডিএসইএক্স সূচক ৩৩ পয়েন্ট বা পৌনে ১ শতাংশ বেড়ে ৪৩৪০ পয়েন্টে উঠেছে। অন্য শেয়ারবাজার সিএসইতে ১১৬ কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের দরবৃদ্ধির বিপরীতে ৯২টির দর কমেছে ও অপরিবর্তিত ছিল ৩৪টির দর। এতে সিএসসিএক্স সূচক ৫৫ পয়েন্ট বেড়ে ৮১১৩ পয়েন্টে উঠেছে। তবে শেয়ারদর ও সূচক বাড়লেও কমেছে দুই বাজারের শেয়ার কেনাবেচার পরিমাণ। গতকাল দুই বাজার মিলে সর্বমোট ৪২০ কোটি ৫৮ লাখ টাকা মূল্যের শেয়ার কেনাবেচা হয়েছে, যা গত বৃহস্পতিবারের তুলনায় সাড়ে ৮২ কোটি টাকা কম। এর মধ্যে ডিএসইর লেনদেন প্রায় ৮১ কোটি টাকা কমে ৩৯৭ কোটি ১৮ লাখ টাকায় নেমেছে। বাজার সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, গতকালের সূচক বৃদ্ধিতে সর্বাধিক ভূমিকা ছিল মবিল যমুনা বাংলাদেশ ও ইসলামী ব্যাংকের শেয়ারদর বৃদ্ধি। এ ছাড়া ব্যাংক খাতের সার্বিক শেয়ারদর বৃদ্ধিও কিছুটা ইতিবাচক প্রভাব রেখেছে। খাতওয়ারি লেনদেন পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গতকাল ব্যাংক, প্রকৌশল, সিমেন্ট, পাট, কাগজ ও ছাপাখানা, টেলিযোগাযোগ এবং বিবিধ খাতের বেশিরভাগ শেয়ারদর বেড়েছে। অন্য খাতগুলোতে ছিল মিশ্রাবস্থা। ব্রোকারেজ কর কমানোর দাবি ডিএসইর :শেয়ার কেনাবেচায় ব্রোকারেজ হাউসের ওপর ধার্য করা কর শূন্য দশমিক শূন্য পাঁচ শতাংশ থেকে কমিয়ে শূন্য দশমিক ০১৫ শতাংশ করার দাবি জানিয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। গতকাল রোববার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সঙ্গে প্রাক বাজেট আলোচনায়। একই সঙ্গে লভ্যাংশ আয়ের ওপর দ্বৈত করনীতি পরিহারের সুপারিশও জানিয়েছে স্টক এক্সচেঞ্জটি। এনবিআরের সঙ্গে বৈঠক শেষে ডিএসই কার্যালয়ে এ বিষয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবির কথা জানান ডিএসইর কর্মকর্তারা। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ডিএসইর চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. ছিদ্দিকুর রহমান মিয়া, পরিচালক শাকিল রিজভী ও রুহুল আমীন এবং ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল মতিন পাটওয়ারী। সংবাদ সম্মেলনে কর্মকর্তারা বলেন, অর্থ আইনের মাধ্যমে সরকারের পক্ষ থেকে কোনো কোম্পানির হিসাব বছর নির্দিষ্ট করে দেওয়ার বিষয়টি কোম্পানি আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। < >
পড়া হয়েছে 697 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: রবিবার, 22 মে 2016 10:07