01262022বুধ
শিরোনাম:
সোমবার, 24 মার্চ 2014 07:51

ইসলামী ব্যাংকের টাকা ফেরত দিল সরকার


নিজস্ব প্রতিবেদক

আগামী ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠেয় 'লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা' কর্মসূচিতে ইসলামী ব্যাংকের দেওয়া তিন কোটি টাকা সহায়তার চেক ফেরত দিয়েছে সরকার।

রোববার দুপুরে অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ ইসলামী ব্যাংকের চেকটি ফেরত দেয়। পরে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের যুগ্ম সচিব অরিজিৎ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে ইসলামী ব্যাংকের সহায়তা না নেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করা হয়। ইসলামী ব্যাংকের টাকা ফেরত দিল সরকার

৪৩তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আগামী ২৬ মার্চ জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে একসঙ্গে তিন লাখ মানুষের অংশগ্রহণে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার আয়োজন করছে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়। এ কর্মসূচিতে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের তিন কোটি টাকার অনুদান নিয়ে ব্যাপক সমালোচনায় পড়ে সরকার। বিশেষ করে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সমালোচনার ঝড় ওঠে।

এক পর্যায়ে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ইসলামী ব্যাংক থেকে কোনো অনুদান নেওয়া হয়নি বলে মন্তব্য করেন। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ইসলামী ব্যাংক থেকে 'লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা' কর্মসূচির জন্য টাকা নেওয়া হলে তা অবশ্যই ফেরত দেওয়া হবে।

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে 'লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা' কর্মসূচির জন্য তিন কোটি টাকা দেওয়ার কথা বলা হয়, যা পরে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। ইসলামী ব্যাংকের বিবৃতি প্রকাশ পাওয়ার পর সমালোচনা তীব্রতর হয়। কিছু সংগঠন ইসলামী ব্যাংকের অনুদান নেওয়ার প্রতিবাদে অনুষ্ঠান বর্জনের ঘোষণা দেয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ইসলামী ব্যাংকের টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। ইসলামী ব্যাংক চাইলে এই টাকা টি২০ বিশ্বকাপের জন্য দিতে পারে আবার না-ও দিতে পারে বলে অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

সরকারের বিবৃতি: কয়েকদিন ধরে 'লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা' অনুষ্ঠান আয়োজনে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের অর্থ সহায়তার বিষয়ে সংবাদমাধ্যমে বিভিন্ন সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে উল্লেখ করে অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আমাদের সরকার যেমন গত মেয়াদে তেমনি বর্তমান মেয়াদে অনেক জাতীয় উদ্যোগ গ্রহণ করেছে এবং করবে।

আমাদের চিরাচরিত পদ্ধতি অনুযায়ী সারা জাতি অংশগ্রহণ করে এবং আমাদের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন শিল্প ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এসব উদ্যোগে অত্যন্ত আগ্রহের সঙ্গে অংশগ্রহণ করে। সরকারও এসব বিষয়ে সহযোগিতা এবং উৎসাহ প্রদান করে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এই কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় বর্তমান মেয়াদের শুরুতেই দুটি বড় ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। আমরা এবার আইসিসি টি২০ বিশ্বকাপের সব খেলা আমাদের দেশে অনুষ্ঠান করছি। এজন্য সরকারের পক্ষ থেকে অবকাঠামো খাতে কয়েকশ' কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে। এই গুরুত্বপূর্ণ খেলাটি সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য আমরা আমাদের তরফ থেকে বিভিন্ন আয়োজন করেছি এবং সেসবে আমাদের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সহায়তা কামনা করেছি এবং পেয়েছিও।

আমাদের দ্বিতীয় উদ্যোগ হচ্ছে আগামী স্বাধীনতা দিবসে লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা গানটি উপস্থাপন করা- উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এ ক্ষেত্রেও আমাদের ব্যক্তিমালিকানা খাত অত্যন্ত আগ্রহের সঙ্গে অংশীদারিত্ব প্রতিষ্ঠা করতে এগিয়ে এসেছে। আমাদের অর্থনীতিতে ব্যক্তিমালিকানা খাতই দেশকে দ্রুতগতিতে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

আমরা তাদের এজন্য সব রকমের সহায়তা প্রদান করে থাকি এবং তারা তাদের সামাজিক দায়িত্ব পালন করে জাতীয় উদ্যোগে নানাভাবে অংশগ্রহণ করে।বিবৃতিতে বলা হয়, 'এ দুটি উদ্যোগ কাছাকাছি সময়ে নেওয়া হয়েছে এবং সেজন্য সরকারের পক্ষ থেকে আমরা আমাদের ব্যক্তিমালিকানা খাতকে এ বিষয়ে তাদের অংশীদারিত্ব প্রতিষ্ঠার জন্য তাদের ইচ্ছা অনুযায়ী এ দুটি উদ্যোগে এগিয়ে আসার আহ্বান জানাই। তদনুযায়ী তারা দুটি উদ্যোগের জন্য তাদের সহায়তার হাত এগিয়ে দেন।

এ বিষয়ে আমরা তাদের অবহিত করি যে, এ দুটি উদ্যোগের জন্য আমাদের প্রয়োজন প্রায় ৯০ কোটি টাকা এবং তারা তাদের ইচ্ছামতো একটি বা দুটি উদ্যোগেই অংশ নিতে পারে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের ইচ্ছামতো এই দুটি উদ্যোগে সহায়তা প্রদান করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তাদের প্রদত্ত চেকগুলো গ্রহণ করেন এবং সেখানে মাননীয় অর্থমন্ত্রী, সংস্কৃতিমন্ত্রী, বিদ্যুৎতমন্ত্রী, ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী, ক্রীড়া উপমন্ত্রী এবং প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ ও জ্বালানি উপদেষ্টা উপস্থিত ছিলেন।'

এতে বলা হয়েছে, প্রাপ্ত সহায়তার সমন্বয় করতে গিয়ে আমরা দেখতে পাই যে, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড 'লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা' অনুষ্ঠানের জন্য তিন কোটি টাকা প্রদান করেছে। এই পর্যায়ে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড প্রদত্ত সহায়তা গ্রহণে অস্বীকৃতি জ্ঞাপন করে। সে অনুযায়ী, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড প্রদত্ত আর্থিক সহায়তা আমরা গ্রহণ করছি না।

ইসলামী ব্যাংক 'আইসিসি ওয়ার্ল্ড টি২০ বাংলাদেশ ২০১৪'-তে দিতে পারে অথবা কোথাও নাও দিতে পারে, উল্লেখ করে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইসলামী ব্যাংক আইনগতভাবে একটি নিবন্ধিত আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং তারা এ দেশে তাদের কার্যক্রম আইনগতভাবে চালিয়ে যাচ্ছে।

তাদের সম্বন্ধে কারও কারও তেমন ভালো ধারণা নেই এবং তাদের সহায়তা গ্রহণে আগেও অনেক প্রতিষ্ঠান অস্বীকৃতি জানিয়েছে। তাই দ্ব্যর্থহীনভাবে বলা যেতে পারে যে, 'লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা' অনুষ্ঠানে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের সহায়তা গ্রহণ করা হচ্ছে না।

পড়া হয়েছে 747 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: সোমবার, 24 মার্চ 2014 07:53

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা