11192018সোম
শুক্রবার, 15 সেপ্টেম্বর 2017 10:12

বিকাশের ২ হাজার ৮৮৭ এজেন্ট বন্ধের নির্দেশ

নিউজ ফ্ল্যাশ প্রতিবেদক হুন্ডির মাধ্যমে অবৈধ পন্থায় অর্থ লেনদেনের অভিযোগে মোবাইল ফোনে আর্থিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশের ২ হাজার ৮৮৭টি এজেন্টের কার্যক্রম স্থগিতের (বন্ধ) নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।বৃহস্পতিবার বিকাশ কর্তৃপক্ষকে এ সিদ্ধান্ত জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সেই সঙ্গে এসব এজেন্টের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া আরো প্রায় দুই হাজার এজেন্টের হিসাব বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বেনামে হিসাব পরিচালনা করায় বন্ধ হতে পারে আরো প্রায় ৮০ হাজার এজেন্টের ৬ লাখ হিসাব। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের একাধিক পরিদর্শনে এসব অনিয়ম ধরা পড়েছে। গতকাল চিঠি ও সিডি আকারে বিকাশ কর্তৃপক্ষের কাছে এসব সিদ্ধান্ত পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্ট ইউনিট বা বিএফআইইউ। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, বাংলাদেশ ব্যাংকের একাধিক তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যেসব কারণে প্রবাসী আয় কমছে তার মধ্যে অন্যতম হলো অবৈধ হুন্ডি তৎপরতা বৃদ্ধি। এক্ষেত্রে হুন্ডি ব্যবসায়ীরা বিদেশে অর্থ সংগ্রহ করছে ও স্থানীয় মুদ্রায় (টাকায়) বিকাশের মাধ্যমে বিতরণ করছে। এজন্য মোবাইল অ্যাপস ও কম্পিউটার নির্ভর স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা ব্যবহার করা হচ্ছে। এসব অবৈধ অর্থায়নের সঙ্গে যেসব এজেন্ট যুক্ত, তাদের হিসাবে কোনো অর্থ উত্তোলন হয় না, শুধু অর্থ জমা হয়। যোগাযোগ করা হলে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র শুভঙ্কর সাহা বলেন, বিকাশের কিছু এজেন্ট অনিয়ম করায় তাদের বেশকিছু হিসাব স্থগিতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাদের অনেক এজেন্ট একাধিক হিসাব পরিচালনা করছে। তাও বন্ধ করতে বলা হয়েছে। ধীরে ধীরে অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোতেও পরিদর্শন করা হবে।
পড়া হয়েছে 219 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 15 সেপ্টেম্বর 2017 10:19