09172019মঙ্গল
রবিবার, 23 জুন 2019 10:09

'বন্দুকযুদ্ধে' রোহিঙ্গাসহ নিহত ২

ফাইল ফটো ফাইল ফটো
টেকনাফ (কক্সবাজার) সংবাদদাতা পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে এক রোহিঙ্গাসহ দুইজন নিহত হয়েছে। কক্সবাজারের টেকনাফে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশের দাবি, তারা চিহ্নিত মানব পাচারকারী। তাদের বিরুদ্ধে মানবপাচার আইনে মামলা আছে। শনিবার গভীর রাতে উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের কাটাবনিয়ার সমুদ্র সংলগ্ন নৌঘাটে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনাটি ঘটেছে। নিহতরা হলেন- টেকনাফ পৌরসভার নাইট্যং পাড়া এলাকার মৃত রশিদ আহম্মদের ছেলে মো. রুবেল (২৩) ও উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরের হাবিবুল্লাহর ছেলে ওমর ফারুক (২৫)। পুলিশ জানায়, বন্দুকযুদ্ধের পর ঘটনাস্থল থেকে ২টি এলজি (আগ্নেয়াস্ত্র) ১১ রাউন্ড শর্টগানের তাজা কার্তুজ ও ১৮ রাউন্ড কার্তুজের খোসা উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই ) নুরুল ইসলাম এবং কনস্টেবল মহিউদ্দিন ও মোহাম্মদ শামীম রেজা আহত হয়েছেন। টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, শনিবার রাতে সাবরাংয়ের সমুদ্রের তীরের নৌঘাট এলাকায় একদল মানব পাচারকারী অবস্থান করছে, এমন খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল সেখানে অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় অস্ত্রধারী মানবপাচারকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। কিছুক্ষণ পর রুবেল ও ফারুককে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে টেকনাফ উপজেলা হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শংকর দেবণাথ তাদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানোর পরামর্শ দেন। পরে সেখানে নেওয়ার পথে তাদের মৃত্যু হয়। ওসি জানান, নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মানবপাচার আইনে মামলা রয়েছে। এ ব্যাপারে অস্ত্রসহ সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে। চিকিৎসক শংকর দেবণাথ বলেন, পুলিশ রাতে গুলিবিদ্ধ দুইজনকে নিয়ে আসে। তাদের শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুলির চিহ্ন ছিল। আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
পড়া হয়েছে 76 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: রবিবার, 23 জুন 2019 10:38