11192018সোম
বৃহস্পতিবার, 06 সেপ্টেম্বর 2018 19:41

লামায় গাড়ি উল্টে আহত ১৭ শিক্ষার্থী

লামা (বান্দরবান) সংবাদদাতা বান্দরবানের লামায় যাত্রীবাহী জীপ গাড়ি উল্টে ১৪ জন মেয়ে শিক্ষার্থী সহ ১৭ জন গুরুতর আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে লামা-সুয়ালক সড়কের ডিসি রোড নামক স্থানে এই দূর্ঘটনা ঘটে। প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান, লামা উপজেলা পর্যায়ে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানে ফুটবল ও কাবাডি খেলায় অংশ নিতে কোয়ান্টাম কসমো স্কুলের শিক্ষার্থীরা লামা বাজারে আসেন। খেলা শেষে জীপ যোগে সরই ফিরে যাওয়ার সময় গজালিয়াস্থ ডিসি রোড নামক স্থানে একটি সেনাবাহিনীর পিকআপ সাইড দিতে গিয়ে জীপ গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাহাড়ের নিচে পড়ে যায়। এসময় জীপ গাড়িটি বেশ কয়েকবার উল্টে খাদে পড়ে। দ্রুত সেনাবাহিনীর সদস্যরা ও স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে সেনাবাহিনীর পিকআপ ও মাহিন্দ্র করে লামা হাসপাতালে নিয়ে আসে। যাত্রীবাহী জীপ গাড়ির ড্রাইভারের অদক্ষার কারণে দূর্ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা যায়। কোয়ান্টাম কসমো স্কুলের ইনচার্জ সালেহ আহমদ বলেন, আহত ১৬ জন সবাই আমাদের স্কুলের শিক্ষক, কর্মচারী ও শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে জাতীয় পর্যায়ে ফুটবল ও কাবাড়িতে অংশ নেয় এমন শিক্ষার্থী রয়েছে। গুরুতর আহতদের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। দূর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিরা হলেন, লামার সরই ইউনিয়নের কোয়ান্টাম কসমো স্কুলের শিক্ষক মো. জাহিদুল ইসলাম (৪০), শাহ আলম (৪২), জেসমিন আক্তার (৩০) প্রতিবন্ধী, শিক্ষার্থী খাদিজা আক্তার (১৮), হীরা আক্তার (১৭), রুবাইয়া সুলতানা (১৪), রেশমি সাওতাল (১৪), নাদিরা (১৫), আদিবা (১৪), বেবী (১৩), তিন্নি (১৩), আয়েশা আক্তার (১৪), শাহানাজ (১২), উহ্লায়ে মার্মা (১২) ও ড্রাইভার আনোয়ার (৩৮)। লামা হাসপাতালের জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার জিয়াউল হায়দার বলেন, এদের মধ্যে মো. জাহিদুল ইসলাম, হীরা আক্তার, খাদিজা আক্তার ও শাহ আলমের অবস্থা খুবই আশংকাজনক। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। অন্যান্যদের চিকিৎসা লামা হাসপাতালে দেয়া হচ্ছে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, খবর পাওয়া মাত্র পুলিশ নিয়ে আমি লামা হাসপাতালে এসে রোগীদের চিকিৎসার খবর নেই। দূর্ঘটনায় পতিত গাড়িটি উদ্ধারে কাজ করা হচ্ছে।
পড়া হয়েছে 33 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: বৃহস্পতিবার, 06 সেপ্টেম্বর 2018 19:46