10162019বুধ
রবিবার, 06 অক্টোবার 2019 16:06

সম্রাট গ্রেফতার, পালাতে চেয়ে ছিলেন ভারত

লিখেছেন 
আইটেম রেট করুন
(0 ভোটসমূহ)
নিউজ ফ্ল্যাশ প্রতিবেদক ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট ১০ দিন ধরে ঢাকা ছেড়েছেন। ক্যাসিনোবিরোধী অভিযানের পর থেকেই গ্রেফতারের আতঙ্কে ছিলেন যুবলীগের এই প্রভাবশালী নেতা। কিন্তু রোববার ভোট ৫ টার দিকে কুমিল্লার এক গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) বলছে, তিনি সর্বশেষ কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জুশ্রীপুর গ্রামে আত্মগোপনে ছিলেন। র‌্যাবের গোয়েন্দা সূত্র বলছে, কুঞ্জুশ্রীপুর গ্রাামটি ভারত সীমান্তের কাছাকাছি। সেখানে এক আত্মীয়র বাসায় ছিলেন তিনি। তার উদ্দেশ্য ছিল সুযোগ বুঝে সীমান্ত দিয়ে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে পালিয়ে যাওয়ার। সূত্র জানায়, শনিবার দিবাগত রাত ১২টার পর চৌদ্দগ্রাম উপজেলার আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামে কয়েক ঘণ্টা ধরে অভিযান চালায় র‌্যাব-১ এর একটি বিশেষ দল। পরে কুঞ্জশ্রীপুর গ্রামের পরিবহন ব্যবসায়ী মনির চৌধুরীর বাড়ি থেকে সম্রাট ও তার সহযোগী আরমানকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। গ্রেপ্তারের পর তাদের ঢাকায় আনা হয়। যুবলীগের প্রভাবশালী এই নেতা আটক বা গ্রেফতার এড়াতে ক্ষমতাসীন দলের হাইকমান্ডের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষার চেষ্টা করে আসছিলেন। হাইকমান্ডের সঙ্গে তিনি দফায় দফায় কথাও বলেছেন। তার কাছ থেকে সুবিধা নেওয়া প্রভাবশালীচক্র এক্ষেত্রে মাধ্যম হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছিল। তবে শেষ পর্যন্ত দলের হাইকমান্ড থেকে সবুজ সংকেত পেয়েই সম্রাটকে আটকের সিদ্ধান্ত নেয় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
পড়া হয়েছে 7 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: রবিবার, 06 অক্টোবার 2019 16:43

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা