10162019বুধ
শুক্রবার, 13 সেপ্টেম্বর 2019 15:45

সাগরে ডোবা জাহাজ এমভি গলফ আরগোরের ১৪ জন নাবিককে জীবিত উদ্ধার

লিখেছেন 
আইটেম রেট করুন
(0 ভোটসমূহ)
বিশেষ প্রতিনিধি বঙ্গোপসাগরের পায়রা ফেয়ারওয়ে বয়ার কাছে ডুবে যাওয়া কন্টেইনারবাহী কার্গো জাহাজ এমভি গলফ আরগোর ১৪ জন নাবিককে গতকাল শুক্রবার সকালে জীবিত উদ্ধার করেছে বাংলাদেশ নৌবাহিনী জাহাজ সাঙ্গু। গতকাল আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর) এক বিজ্ঞপ্তিরত এ তথ্য জানিয়েছে। এতে জানানো হয়, বৃহস্পতিবার রাতে কন্টেইনারবাহী জাহাজ এমভি আরগো ১৫২ টি কন্টেইনার নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে কলকাতা যাবার পথে পায়রা ফেয়ারওয়ে বয়ার কাছে পৌঁছলে ইঞ্জিন বিকল হয়ে যায়। এসময় বঙ্গোপসাগর উত্তাল থাকায় কন্টেইনারসহ জাহাজটি ডুবে যায়। খবর পেয়ে গভীর সমুদ্রে টহলরত বাংলাদেশ নৌবাহিনী জাহাজ সাঙ্গু তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধারকাজ চালায়। শুক্রবার সকালে ১৪ জন নাবিককে সমুদ্রে ভাসমান অবস্থায় জীবিত উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত নাবিকেরা হলো জাহাজের ক্যাপ্টেন কাজী আব্দুল্লাহ আল মুহিত (৩৫) নোয়াখালী, চীফ ইঞ্জিনিয়ার হাসান রেজা খালিদ (৩২) চট্টগ্রাম, চীফ অফিসার কাজী মাহমুব আলম (২৮) গোপালগঞ্চ, সেকেন্ড ইঞ্জিনিয়ার নূর আলম হিমেল (২৬) নারায়ণগঞ্জ, থার্ড মাস্টার মোজাম্মেল হোসেন (২৪) নোয়াখালী, বোসনমেট রফিক উল্লাহ (৫৯) ফেনী, এ্যাবল সীম্যান মোঃ জুবায়ের হোসেন (২৪) চট্টগ্রাম, অডিনারী সীম্যান সুজন মুখারজি (২০) ফরিদপুর, অডিনারী সীম্যান মোঃ সাহাবুদ্দিনসহ (২১) ভুলা, শাহদাত হোসেন (৩৭) লক্ষীপুর, জমিরুল ইসলাম (৩০) চট্টগ্রাম, শহিদ মিয়া (২৩) রংপুর, মোঃ রাজু (২৫) চট্টগ্রাম এবং আব্দুর রশিদ (৫০) চট্টগ্রাম। উদ্ধারকৃত নাবিকগণ সবাই বাংলাদেশের নাগরিক। নাবিকরা বর্তমানে সমুদ্রে নৌবাহিনী জাহাজ সাঙ্গুতে রয়েছেন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা ও খাবার দেওয়া হয়েছে। উদ্ধার অভিযান শেষে জাহাজটি পায়রা বন্দরে ফিরলে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
পড়া হয়েছে 17 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 13 সেপ্টেম্বর 2019 15:51

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা