08222019বৃহঃ
বৃহস্পতিবার, 11 এপ্রিল 2019 08:35

মাদরাসাছাত্রী রাফি সবাইকে কাদিয়ে চলে গেল

লিখেছেন 
আইটেম রেট করুন
(0 ভোটসমূহ)
নিউজ ফ্ল্যাশ প্রতিবেদক ফেনীর সোনাগাজীর অগ্নিদগ্ধ মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে হেরে গেছেন । তবে জিতে গেছেন মাদ্রাসার শিক্ষক নামের ধর্ষক, এক নরপিচাশের বিরুেদ্ধ লড়াই করে। বুধবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন নুসরাতের মৃত্যু হয় বলে ঢাকাটাইমসকে জানান চিকিৎসক অধ্যাপক রায়হানা আউয়াল। নুসরাতের মৃত্যুর ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত ৬ এপ্রিল সকাল নয়টার দিকে আলিম (এইচএসসি) পর্যায়ের আরবি প্রথম পত্র পরীক্ষা দিতে গিয়ে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসা কেন্দ্রে হামলার শিকার হন নুসরাত জাহান। তাকে পাশের ভবনের ছাদে ডেকে নিয়ে সেখানে বোরকা পরিহিত ৪-৫ জন তার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে তার শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে যায়। ঢামেকের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন নুসরাত। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টায় তার চিকিৎসার বিষয়ে সিঙ্গাপুরের জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলেন মেডিক্যাল বোর্ড। এরপর সকাল সোয়া ১০টা থেকে দুই ঘণ্টাব্যাপী অস্ত্রোপচার চলে তার। লাইফসাপোর্টে রেখেই দুই ঘণ্টা ধরে এই অস্ত্রোপচার করা হয়। নুসরাতের উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু তার অবস্থা এতই খারাপ ছিল যে তাকে সিঙ্গাপুরে পাঠানো সম্ভব হয়নি। তবে নুসরাতের চিকিৎসায় সেখানকার চিকিৎসকদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক পরামর্শ করেছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের প্রধান ডা. সামন্ত লালসহ চিকিৎসকরা। ডা. সামন্ত লাল জানিয়েছেন, নুসরাতের মরদেহ আজ রাতে হিমঘরে থাকবে। বৃহস্পতিবার ময়নাতদন্তের পর মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে।
পড়া হয়েছে 78 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: বৃহস্পতিবার, 11 এপ্রিল 2019 08:51

এ বিভাগের সর্বশেষ সংবাদ

ফেসবুক-এ আমরা