12132017বুধ
সোমবার, 04 ডিসেম্বর 2017 10:25

কম্বোডিয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে লাল গালিচা সংবর্ধনা

নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের আমন্ত্রণে তিন দিনের সরকারী সফরে কম্বোডিয়ায় পৌঁছালে বিমানবন্দরে তাঁকে লাল গালিচা সংবর্ধনা জানানো হয়। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর সফর সঙ্গীদের নিয়ে গতকাল স্থানীয় সময় দুপুর সাড়ে ১২টায় নমপেন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়। এ সময় কম্বোডিয়ার নারী বিষয়ক মন্ত্রী ইং কান্থা পাভি, পররাষ্ট্র ও আন্তর্জাতিক সহায়তা বিষয়ক আন্ডার সেক্রেটারি অব স্টেট ইতা সোফিয়া, বাংলাদেশে কম্বোডিয়ার অনাবাসিক রাষ্ট্রদূত পিচকুন পানহা এবং থাইল্যান্ডে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ও কম্বোডিয়ায় এক্রেডিটেড রাষ্ট্রদূত সাইদা মুনা তাসনিম বিমান বন্দরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থনা জানান। প্রধানমন্ত্রী বিমান থেকে নামলে একটি কম্বোডিয়ান শিশু তাঁকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানায়। এসময় নমপেনে বসবাসকারী বাংলাদেশীরা তাঁকে বাংলাদেশী পতাকা নেড়ে অভিবাদন জানায়। অভ্যর্থনা শেষে একটি মোটর শোভাযাত্রায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হোটেল সফিটেলে নিয়ে যাওয়া হয়, কম্বোডিয়া সফরকালে প্রধানমন্ত্রী এই হোটেলেই অবস্থান করবেন। প্রধানমন্ত্রীর সফর উপলক্ষে বিমান বন্দর থেকে নগরীর সড়কগুলো বাংলাদেশ ও কম্বোডিয়ার পতাকা ও দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর ছবি দিয়ে আকর্ষণীয় করে সাজানো হয়েছে। বিকেলে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নমপেনে কম্বোডিয়ার স্বাধীনতা স্মৃতিস্থম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন। তিনি এ সময় কম্বোডিয়ার সাবেক রাজা নরডম সিহাহনুকের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী হুন সেনের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করবেন। এর আগে দুই নেতা একান্ত বৈঠক করবেন। সরকারী সূত্র জানায় প্রধানমন্ত্রীর কম্বোডিয়া সফরে দুই দেশের মধ্যে ১১ টিরও বেশি ইন্সট্রুমেন্ট, দুটি চুক্তি এবং নয়টি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হওয়ার কথা রয়েছে। এসময় ঢাকা ও নমপেন এর দুটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক দু’দেশের জাতির পিতার নামে নামকরণ করার কথা ঘোষণা করা হবে। । সফর শেষে আগামী ৫ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর সঙ্গী হিসেবে অন্যান্যের মধ্যে রয়েছেন বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ট কন্যা শেখ রেহানা, বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, পররাষ্ট্র মন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি প্রকল্পের প্রধান সমন্বয় মো. আবুল কালাম আজাদ, পররাষ্ট্র সচিব এম. শহীদুল হক এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম।
পড়া হয়েছে 6 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: সোমবার, 04 ডিসেম্বর 2017 10:32