12082019রবি
শুক্রবার, 15 নভেম্বর 2019 13:26

শিশু চুরি করে হাজার টাকায় বিক্রি

নিউজ ফ্ল্যাশ প্রতিবেদক ফুটফুটে শিশুটির বয়স মাত্র ৭ মাস। নাম সাদিয়া আক্তার। গত ২৭শে অক্টোবর এই কন্যা শিশুটিকে চুরি করে নিয়ে যায় রুমা আক্তার (২০) নামে এক নারী। পরে তিনি মাত্র একহাজার টাকার বিনিময়ে শিশুটিকে বিক্রি করে দেন। এদিকে শিশুটির মা সন্তান হারানোর শোকে পাগল প্রায়। তিনি বিভিন্ন জায়গায় খুঁজতে থাকেন। অবশেষে না পেয়ে গত বুধবার র‌্যার-৪ (মিরপুর-১) এ অভিযোগ দেন। অভিযোগ দেয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই চোরকে আটকের পর শিশুটিকে উদ্ধার করে র‌্যাব। দুধের শিশু সাদিয়াকে ফেরত পেয়ে তার মা আবেগ-আপ্লুত হয়ে পড়েন। এ সময় মা-সন্তানের কান্নায় এক হৃদয়-বিদারক দৃশ্যের অবতারণা হয়। র‌্যাব সূত্র জানায়, শিশু সাদিয়ার মায়ের দেয়া অভিযোগের ভিত্তিতে গত বুধবার র‌্যাব-৪ এর একটি দল রাজধানীর শাহ্আলী থানাধীন শাহআলী মাজার এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। সেখান থেকে শিশু চোর ফরিদপুরের মোছা. রুমা আক্তার (২০) কে গ্রেপ্তার করে। পরে তার দেয়া তথ্যমতে, চুরি হওয়া ৭ মাস বয়সের কন্যাশিশু মোছা. সাদিয়া আক্তারকে মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানাধীন টেপরা গ্রাম থেকে উদ্ধার করে র‌্যাব। পরে গতকালই শিশুটিকে তার প্রকৃত মায়ের কাছে ফেরত দেয়া হয়। র‌্যাব জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে শিশু চোর মোছা. রুমা আক্তার জানিয়েছে, গত ২৭শে অক্টোবর শিশুটিকে শাহ্্আলী মাজার থেকে চুরি করে সে। পরে নিজেকে মা পরিচয় দিয়ে ও দারিদ্র্যের অজুহাত দেখিয়ে কান্নাকাটি করে। ভরণপোষণের অপারগতার কথা বলে মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানাধীন টেপরা গ্রামের নিঃসন্তান আজাদ মিয়া দম্পতির কাছে মাত্র ১০০০ টাকায় শিশুটিকে বিক্রি করে দেয়। রুমা আরও জানায়, সে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে শিশু সন্তানদের চুরি করে বিভিন্ন লোকদের কাছে বিক্রি করে থাকে। এ ব্যাপারে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব
পড়া হয়েছে 14 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: শুক্রবার, 15 নভেম্বর 2019 13:29