10222017রবি
রবিবার, 01 অক্টোবার 2017 20:30

রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে আদ্-দ্বীন হাসপাতাল

নিউজ ফ্ল্যাশ ডেস্ক মিয়ানমারে সহিংসতার শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের চিকিৎসা সেবা দিয়ে সহায়তা করছে আদ্-দ্বীন হাসপাতাল। ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার থাইংখালিতে আদ্-দ্বীন হাসপাতাল অস্থায়ী স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করছে । ৩০ সদস্যের স্বাস্থ্য কর্মীদের দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন আদ্-দ্বীন হাসপাতালের পরিচালক ডা. নাহিদ ইয়াসিন। শুধু বিনামূল্যে স্বাস্থ্য সেবা নয় ওষুধপত্রও দিচ্ছে আদ্-দ্বীন হাসপাতাল। অস্থায়ী ক্যাম্পের বাইরে আদ্-দ্বীনের প্যারামেডিক্স ও স্থানীয়দের নিয়ে গঠিত ১৪ জনের একটি টিম ক্যাম্পে আলাদা ভাবে ঘুরেও চিকিৎসা দিচ্ছে। গর্ভবতী নারীকে ডেলিভারী করাতে হবে এমন খবর পেলেই ছুটে যাচ্ছে আদ্-দ্বীনের অ্যাম্বুলেন্স। অস্থায়ী ক্যাম্প চালু হওয়ার পর স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সামনে ট্যাংক বসিয়ে সরবরাহ করা হচ্ছে বিশুদ্ধ পানি। চিকিৎসা সেবা প্রদানের পাশাপাশি ঘুরে দেখেছেন আশ্রয় কেন্দ্রগুলো ঘুরে দেখেছেন ডা. নাহিদ ইয়াসমিন। তিনি বলেন, মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে রয়েছেন আশ্রয় কেন্দ্রের মানুষেরা। বিশেষ করে গর্ভবতী মা এবং শিশুদের অবস্থা খুবই খারাপ। অনেকেই বৃদ্ধ ও শিশু এসেছেন নিউমোনিয়া, শ্বাস কষ্টসহ বিভিন্ন রোগ নিয়ে। দেখা দিয়েছে চর্মরোগ। প্রাথমিক স্বাস্থ্য শিক্ষার অভাবে তাদের অবস্থা দিনদিন আরো খারাপ হচ্ছে। তিনি বলেন, যতদিন উদ্বাস্তু রোহিঙ্গারা থাকবে ততদিন আমরা স্বাস্থ্যকেন্দ্র চালু রাখবো। বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ওষুধপত্র দিয়ে যাবো। রোহিঙ্গাদের সুস্থ রাখাই আমাদের চ্যালেঞ্জ। উখিয়া উপজেলার থাইংখালী এলাকায় একটি ভবন ভাড়া করে গড়ে তোলা হয়েছে অস্থায়ী স্বাস্থ্যকেন্দ্র। শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ, গাইনোকলোজি মেডিসিন বিষয়ে অভিজ্ঞ একদল ডাক্তারের নেতৃত্বে সেবিকা-প্যারামেডিক্স-মিডওয়াইফারসহ ৩০ জনের টিম কাজ করে যাচ্ছে এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রে শুধু বিনামূল্যে চিকিৎসা নয়, ওষুধও দিচ্ছে আদ্-দ্বীন। ডা ইয়াসমিন বলেন, যতদিন উদ্বাস্তু রোহিঙ্গারা থাকবেন, ততদিন আমরা স্বাস্থ্যকেন্দ্র চালু রাখব এবং বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা ও ওষুধ দিয়ে যাব। রোহিঙ্গাদের সুস্থ রাখাটাই আমাদের চ্যালেঞ্জ। রোহিঙ্গাদের সম্ভবত উখিয়ার বালুখালীতে ২০০০ একরের একটি জায়গায় নিয়ে যাওয়া হবে। তাদের সেখানে নেওয়ার পর আমরাও অস্থায়ী স্বাস্থ্যকেন্দ্র সিভিল সার্জনের অনুমতি নিয়ে সেখানে নিয়ে যাব। ’
পড়া হয়েছে 12 বার। সর্বশেষ সম্পাদন করা হয়েছে: রবিবার, 01 অক্টোবার 2017 20:33